সংবাদ শিরোনাম
নোবিপ্রবি’তে ‘বিশ্ব ডিএনএ দিবস’ পালিত! | গরমে ভোগান্তি চরমে, শুক্রবার আরও বাড়তে পারে তাপমাত্রা! | নোবিপ্রবিতে ২য় আন্তর্জাতিক ফিসারিজ শীর্ষক সিম্পোজিয়াম অনুষ্ঠিত | ‘একটি ছবি তোলার জন্য অনেক সময় জীবনের ঝুঁকি নিতে হয়’- তথ্যমন্ত্রী | আমতলীতে জমিজমার বিরোধকে কেন্দ্র করে এইচএসসি পরীক্ষার্থীকে মারধর | জন্মদিন ভুলে যাওয়ায় বাবা-মায়ের সঙ্গে অভিমান করে শিক্ষিকার আত্মহত্যা! | শপথ পড়লেন আমতলী উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা | হবিগঞ্জ বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন | ধান ফলায় কৃষক, মুনাফা লুটে মজুতদার ও মধ্যস্বত্ত্বভোগীরা! | কক্সবাজারে বিল বকেয়া থাকার অভিযোগে কয়েকটি মসজিদে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন |
  • আজ ১২ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ইউটিউবে উপার্জন এবার হতে চলেছে আরও কঠিন

১২:৩৫ অপরাহ্ণ | বুধবার, জানুয়ারি ৩১, ২০১৮ ইন্টারনেট রঙ্গ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক- ইউটিউব থেকে অর্থ উপার্জন আর সহজ হবে না বলে মনে করা হচ্ছে। জানা গেছে, এখন থেকে সেইসব চ্যানেলই বিজ্ঞাপন পাবে যাদের কাছে কমপক্ষে ১ হাজার সাবস্ক্রাইবার রয়েছে এবং ১২ মাসে কমপক্ষে ৪,০০০ ঘণ্টা ভিডিও ওই চ্যানেলে দেখা গেছে।

আগে অর্থাৎ ১০ হাজার ভিউজ হলে বিজ্ঞাপন পাওয়া যেত। ইউটিউব তার ব্লগ পোস্টে জানিয়েছে ২০ ফেব্রুয়ারি শেষ তারিখ, এর মধ্যে ১ হাজার সাবস্ক্রাইবার এবং ৪ হাজার ঘন্টার ভিডিও না থাকলে বিজ্ঞাপন পাওয়া যাবে না।

লক্ষ লক্ষ মানুষ ইউটিউবের পার্টনার প্রোগ্রামের মাধ্যমে প্রতি বছর প্রচুর অর্থ উপার্জন করে থাকে। কিন্তু ইউটিউবের এই নতুন নিয়মের পর এবার থেকে ক্রিয়েটর-দের টাকা প্রতিদিন বেশ কঠিন হবে বলেই মনে করা হচ্ছে। পাশাপাশি নতুন ক্রিয়েটরদের নিজেদের চ্যানেল শুরু করতে গিয়েও সমস্যায় পড়তে হবে পারে।

এর ফলে যারা আগে থেকেই ইউটিউব’এ চ্যানেল পরিচালনা করে আসছেন তাদের তেমন হতাশ হতে হবে না। তবে নতুন অবস্থায় যারা ইউটিউব চ্যানেল পরিচালনা করছেন তারা সমস্যায় পড়বেন। নতুন ইউটিউব চ্যানেলের মালিকেরা তাই হতাশ হলেও পুরনো ব্যবহারকারীরা আছেন ভিন্ন মেজাজে। তাদের আশা, নতুন এই কড়াকড়ি নিয়মের ফলে হয়তো বিজ্ঞাপনের জন্য প্রদেয় অর্থের পরিমাণ বাড়াতে পারে ইউটিউব।

ইউটিউবের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, আপলোড করা ভিডিওর ‘কনটেন্ট’এর ক্ষেত্রে আরও সতর্ক হতে হবে সবাইকে। কেননা, কোনো রকম অশ্লীল, বর্ণবিদ্বেষী এবং অন্যের ভিডিও চুরি করে ধরা পড়লে ওই চ্যানেলের বিরুদ্ধে কঠিন শাস্তির ব্যবস্থা থাকবে। এমনকি চ্যানেলটি বন্ধও করে দেয়া হতে পারে।

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি