ভালবাসার মানুষটিকে যেভাবে বলবেন আপনার মনের কথা

সম্পাদনা, রবিউল ইসলাম (রবি), নিউজ রুম এডিটর, লাইফস্টাইল ফিচার ডেস্ক–

যদি বলি ‘আমার কোনও প্রেমিকা নেই। আর এই জন্য বন্ধুদের নিকট হাস্যময় পণ্য আমি। এই কারণে আমাকে খুব ত্যক্ত করাটাও যেন ওদের জীবনের হবী হয়ে গেছে। রাগে ক্রোধে নিজেকে আড়ালে লুকিয়ে রাখতে হয়। তিল থেকে তাল করতে ওদের খুব বেশি সময় লাগতো না।

অসহায়ত্বের জীবন নিয়ে নদীর ঘাটে, যেখান শেওলা গুলো খুব একাকি হয়ে মাটির রঙে নিজেদের রাঙিয়েছে তাদের সাথে কথোপকথন। কেউ আসেনি তবু একাকিত্বের বন্দিশালা থেকে বের করতে। আপনিই বলুন আর কতদিন? কতটা বন্ধুদের ছিটানো আঁতরের জল গায়ে জড়িয়ে ঘুরে বেড়াবো পথ থেকে পথে। আমিও তো মানুষ।

যাকগে সে সব কথা, আজ ১৪ ই ফেব্রুয়ারি। বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। ভালোবাসার জন্য আলাদা একটি দিন। কেবলই ভালোবাসার। করতালে সুর তুলে আজ ভালোবাসার গান গাইবার দিন। ‘ভালোবাসা মোরে ভিখারি করেছে তোমারে করেছে রানী’, অথবা ‘আমি ভালোবাসি যারে, সে কী কভু আমা হতে দূরে যেতে পারে।’

পৃথিবীর আদিমতম সম্পর্কের নাম ভালোবাসা। সৃষ্টির শুরু থেকে মানুষের প্রতি মানুষের ভালোবাসা, চার পাশের প্রকৃতি ও পরিবেশের প্রতি ভালোবাসা আগেও যেমন ছিল এখনো সে রকমই আছে।

একটা সময় ভ্যালেন্টাইন্স ডে ছিল না। কিস ডে ছিল না। চকলেট ডে ছিল না। ছিল না প্রোপোজ ডেও। কিন্তু প্রেম ছিল। দুনিয়াকে উলট পালট করা প্রেম ছিল। হুম…খাটি প্রেম ছিল। গভীর ভালোবাসা ছিল। বিশুদ্ধ বিশ্বাস ছিল। একে অপরের প্রতি প্রচণ্ড আস্থা ছিল। নির্ভরতা ছিল। প্রকাশ ছিল কম অথচ অনুভব ছিল সুগভীর।

যুগ পাল্টে গেছে। পাল্টে গেছে মানুষগুলোও। সাথে চিন্তা ধারাও। আধুনিকতার ছোঁয়া লেগেছে আমাদের জীবনে। আর তাই তো এখন ভালোবাসাকে ঘিরে আমাদের আয়োজন অনেক, যা প্রয়োজনের থেকেও বেশি ।

যদিও ভালবাসার জন্য কোনো বিশেষ দিন হয় না। বছরের যেকোনো দিনেই প্রিয়তম বা প্রিয়তমাকে ভালবাসার অনুভূতি জানানো যায়। কিন্তু তা সত্বেও ফেব্রুয়ারী মাসের একটা সপ্তাহ কে বিশেষ ভাবে ভালোবাসার সপ্তাহ হিসেবে আমরা পালন করে থাকি।

ফেব্রুয়ারী মাসের ৭ তারিখ থেকে ১৪ তারিখ পর্যন্ত দিনগুলি প্রত্যেক প্রেমিক প্রেমিকার কাছেই বিশেষ ভাবে গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এই এক সপ্তাহের প্রতিটি দিনই নিয়ে অাসে মনে প্রানে নতুন এবং বিশেষ ধরণের এক অণুভূতি। সবাই চায় নিজের ভালবাসার মানুষটির সঙ্গে এই বিশেষ ৭ টি দিন কাটাতে।

আমাদের দেশের সংস্কৃতিতে খুব একটা প্রচলন না থাকলেও বিশ্ব জুড়েই বেশ সমারোহে মানুষ এই দিনগুলোর প্রতিটিই নানা আয়োজনে পালন করে থাকে। আমাদের দেশে অবশ্য শুধুমাত্র ’14 Feb – ভ্যালেন্টাইনস ডে’র প্রচলন আছে, তবে সেটাও খুব প্রকট আকারে নয়।

প্রত্যেকটা মানুষের মন যেমন আলাদা, তেমনি মনের ভাষাও আলাদা। যেমন আজ কেউ প্রিয় মানুষটারহাত ধরে বলবে………..বা কেউ হাজার কবিতা লিখলেও একটাও তার মনের মত হল না বলে প্রিয়তমার সামনে উসকো খুসকো ভাবে তাকাবে। কেউ ফুল আনতে ভুলে গিয়েছে বলে আজীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামির বেশে হাজির হবে। কেউ বা আজ খোঁপার বাঁধন খুলবে শুধুই প্রিয় জনের জন্য। আর কেউ হয়তো বা থাকবে এমন আরো হাজার দিনের অপেহ্মায়।

যাক সেসব কথা, এবার মূল প্রসঙ্গে আসি, প্রেমের প্রস্তাব দেয়া শুনতে যতটা সহজ মনে হয় আসলে ঠিক ততটাই কঠিন। কীভাবে প্রস্তাব দেবেন, কীভাবে মুগ্ধ করবেন প্রিয় মানুষটিকে? কী বলে মন জয় করে নেবেন তার?

আপনার জন্য রইলো প্রেম নিবেদনের এই ১০টি টিপস। এগুলো থেকে শিক্ষা নিন, অনুপ্রাণিত হোন। তারপর তৈরি করে নিন নিজের ভালবাসার সঠিক অভিব্যক্তি—

১-একেবারে নিজস্ব স্টাইলে প্রোপোজ করুন। যেভাবে মনের কথা বললে নিজেকে সবথেকে বেশি আত্মবিশ্বাসী মনে হয়, সেই পথটিই বেছে নিন।

২-অন্যতম সফল এবং পরীক্ষীত উপায়— ক্যান্ডেল লাইট ডিনার।

৩-প্রথমবার দু’জনের যেখানে দেখা হয়েছিল, সেখানে প্রিয় মানুষটিকে নিয়ে গিয়ে প্রোপোজ করুন।

৪-নিজের জন্মদিন, অথবা যাঁকে প্রোপোজ করতে চান তাঁর জন্মদিনে। কিম্বা ভ্যালেন্টাইনস ডে অথবা অন্য কোনও বিশেষ দিনে প্রোপোজ করুন।

৫-দু’জনে সিনেমা দেখতে যান। বিরতিতে নিজের মনের কথাটা বলে ফেলুন।

৬-মুখে বলতে নার্ভাস লাগছে। টি-শার্টেই মনের কথা লিখে প্রিয় মানুষটিতে জানিয়ে দিন।

৭-নিজেই বন্ধুবান্ধব অথবা কাছের কয়েকজনকে নিয়ে পিকনিকের আয়োজন করুন। পিকনিকে গিয়ে সুযোগ বুঝে একান্তে মনের কথাটা মনের মানুষকে বলে দিন।

৮-এফএম-এর লাইভ অনুষ্ঠানে ফোন করে প্রোপোজ করুন। যাঁকে প্রোপোজ করতে চান, তাঁকে আগে থেকে ওই অনুষ্ঠান শুনতে বলে রাখুন।

৯-মনের মানুষটি একটা কিছু উপহার দিন। ছোট উপহারের বাক্সের মধ্যেই নিজের মনের কথাটি লিখে রাখুন।

১০-যাঁকে প্রোপোজ করতে চান, তাঁকে কোনও নির্জন জায়গায় নিয়ে যান। আগে থেকে সেখানে এরকম কিছু ব্যবস্থা করে রাখুন। বন্ধুদের উপস্থিতিতেও করতে পারেন।

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি