SOMOYERKONTHOSOR

সুয়ারেজ,আলবার গোলে এইবারকে হারাল বার্সা

স্পোর্টস ডেস্কঃস্প্যানিশ লা লিগায় এইবারের বিপক্ষে ২-০ গোলের জয় পেয়েছে বার্সেলোনা। লুইস সুয়ারেজের গোলে প্রথমার্ধে এগিয়ে যাওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন জর্ডি আলবা।

লা লিগায় আগের দুই ম্যাচে ড্র করে পয়েন্ট হারিয়েছিল কাতালানরা। এই জয়ে টুর্নামেন্টে এখনো অপরাজিত তারা। ২৪ ম্যাচ শেষে ৬২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে দলটি। দ্বিতীয় স্থানে থাকা অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের পয়েন্ট ৫২। ৪২ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ রিয়াল মাদ্রিদ।

বৃহস্পতিবার (বাংলাদেশ সময় বুধবার রাত ১টা ৪৫ মিনিট) চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ ষোলোর প্রথম লেগে চেলসির বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ থাকলেও এইবারের বিপক্ষে এদিন শক্তিশালী একাদশ সাজান কোচ আর্নেস্টো ভালভার্দে। শুধুমাত্র কৌতিনহো প্রথমার্ধে বেঞ্চে ছিলেন। সেই তাকেও দ্বিতীয়ার্ধে খেলানো হয়।

ম্যাচের ১৬তম মিনিটে লুইস সুয়ারেজের গোলে এগিয়ে যায় বার্সা। মেসির ‘থ্র’ বল থেকে ডান পায়ের শটে ছয় গজ বক্সের ডানদিক থেকে বল জালে জড়ান উরুগুয়ে তারকা। এই মৌসুমে লা লিগায় এটি তার ১৭তম গোল।

দুই দলের সবশেষ দেখা হয় গত বছর ২০ সেপ্টেম্বর। লা লিগার ওই ম্যাচে ৬-১ গোলে জিতেছিল বার্সা। মেসি সেদিন একাই করেছিলেন চার গোল। কাতালানদের বিপক্ষে এর আগের পাঁচ দেখায় একবারও জিততে পারেনি এইবার।
মূর্তিকারিগর
প্রথমার্ধে এক গোল হজম করে রক্ষণাত্মক হয়ে যায় দলটি। ব্যবধান বাড়াতে বার্সাকে বেশ বেগ পেতে হয়।

দ্বিতীয়ার্ধের ৬৪তম মিনিটে ইনিয়েস্তাকে উঠিয়ে কৌতিনহোকে নামান ভালভার্দে।

৬৯তম মিনিটে এইবার দশজনের দলে পরিণত হয়। আগুয়ান বুসকেটসের মুখে হাত দিয়ে আটকে রাখেন পেপ ডিওপ। রেফারি ফাউলের বাঁশি বাজালে ফ্যাবিয়ান ওরেল্লানা তেলেবেগুনে জ্বলে ওঠেন। বল ছুঁড়ে রাগ ঝাড়েন। রেফারি সঙ্গে সঙ্গে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখিয়ে ওরেল্লানাকে বের করে দেন। কিছুক্ষণ পর দলটির কোচকেও সাইডলাইন থেকে সরার নির্দেশন দেন রেফারি।

স্প্যানিশ লা লিগায় এইবারের বিপক্ষে ২-০ গোলের জয় পেয়েছে বার্সেলোনা। লুইস সুয়ারেজের গোলে প্রথমার্ধে এগিয়ে যাওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন জর্ডি আলবা।

লা লিগায় আগের দুই ম্যাচে ড্র করে পয়েন্ট হারিয়েছিল কাতালানরা। এই জয়ে টুর্নামেন্টে এখনো অপরাজিত তারা। ২৪ ম্যাচ শেষে ৬২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে দলটি। দ্বিতীয় স্থানে থাকা অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের পয়েন্ট ৫২। ৪২ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ রিয়াল মাদ্রিদ।

বৃহস্পতিবার (বাংলাদেশ সময় বুধবার রাত ১টা ৪৫ মিনিট) চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ ষোলোর প্রথম লেগে চেলসির বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ থাকলেও এইবারের বিপক্ষে এদিন শক্তিশালী একাদশ সাজান কোচ আর্নেস্টো ভালভার্দে। শুধুমাত্র কৌতিনহো প্রথমার্ধে বেঞ্চে ছিলেন। সেই তাকেও দ্বিতীয়ার্ধে খেলানো হয়।

ম্যাচের ১৬তম মিনিটে লুইস সুয়ারেজের গোলে এগিয়ে যায় বার্সা। মেসির ‘থ্র’ বল থেকে ডান পায়ের শটে ছয় গজ বক্সের ডানদিক থেকে বল জালে জড়ান উরুগুয়ে তারকা। এই মৌসুমে লা লিগায় এটি তার ১৭তম গোল।

দুই দলের সবশেষ দেখা হয় গত বছর ২০ সেপ্টেম্বর। লা লিগার ওই ম্যাচে ৬-১ গোলে জিতেছিল বার্সা। মেসি সেদিন একাই করেছিলেন চার গোল। কাতালানদের বিপক্ষে এর আগের পাঁচ দেখায় একবারও জিততে পারেনি এইবার।
মূর্তিকারিগর
প্রথমার্ধে এক গোল হজম করে রক্ষণাত্মক হয়ে যায় দলটি। ব্যবধান বাড়াতে বার্সাকে বেশ বেগ পেতে হয়।

দ্বিতীয়ার্ধের ৬৪তম মিনিটে ইনিয়েস্তাকে উঠিয়ে কৌতিনহোকে নামান ভালভার্দে।

৬৯তম মিনিটে এইবার দশজনের দলে পরিণত হয়। আগুয়ান বুসকেটসের মুখে হাত দিয়ে আটকে রাখেন পেপ ডিওপ। রেফারি ফাউলের বাঁশি বাজালে ফ্যাবিয়ান ওরেল্লানা তেলেবেগুনে জ্বলে ওঠেন। বল ছুঁড়ে রাগ ঝাড়েন। রেফারি সঙ্গে সঙ্গে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখিয়ে ওরেল্লানাকে বের করে দেন। কিছুক্ষণ পর দলটির কোচকেও সাইডলাইন থেকে সরার নির্দেশন দেন রেফারি।

৮৮তম মিনিটে দ্বিতীয় গোলের দেখা পায় বার্সা। ডানদিক থেকে ভিদালের ক্রস খুঁজে নেয় মেসিকে। মেসির শট প্রতিহত করেন গোলরক্ষক মার্কো দিমিত্রোভিচ। ফিরতি বল পেয়ে যান জর্ডি আলবা। ঠাণ্ডা মাথায় ব্যবধান ২-০ করেন তিনি।

গোটা ম্যাচে বেশ কয়েটি সুযোগ নষ্ট করা মেসি শেষ মিনিটেও বক্সের ভেতর থেকে বল উড়িয়ে মারেন।

সময়ের কণ্ঠস্বর/ফয়সাল