জিয়ার মৃত্যু রহস্যে নতুন মোড়!

বিনোদন ডেস্কঃ

মৃত্যুর প্রায় ৫ বছর কেটে গিয়েছে। আজও বিচার পেলেন না অভিনেত্রী জিয়া খান। ন্যায়ের পথে এবার কাঁটা হয়ে দাঁড়ালেন তাঁর নিজের মা।

২০১৩ সালের ৩ জুন গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন জিয়া। মেয়ের মৃত্যুর জন্য তার দীর্ঘদিনের প্রেমিক সুরজ পাঞ্চলিকে দায়ী করে অভিনেতার বিরুদ্ধে ইন্ডিয়ান পেনাল কোড-এর ৩০৬ নং ধারা অনুযায়ী আত্মহত্যার প্ররোচনা দেওয়ার মামলা দায়ের করেন জিয়ার মা রাবিয়া।

গত বুধবার অর্থাৎ ১৪ ফেব্রুয়ারি এই মামলার শুনানি ছিল মুম্বই আদালতে। অভিযুক্ত সুরজ এবং তার উকিল প্রশান্ত পাটিল সময়ের মধ্যে আদালতে পৌঁছে গেলেও অনুপস্থিত ছিলেন জিয়ার মা রাবিয়া এবং তার উকিল।

আদালত থেকে বেরিয়ে সুরজ জানিয়েছেন যে, ২১ ফেব্রুয়ারি শুনানির পরবর্তী তারিখ দিয়েছে আদালত। সেই দিনও যদি রাবিয়া অনুপস্থিত থাকেন তাহলে তার বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হবে।

রাবিয়ার অনুপস্থিতি নিয়ে আপাতত চলছে গুঞ্জন। তাহলে কি তিনি চান না, তার মৃত মেয়ে জিয়া ন্যায়বিচার পান? কেন তিনি উপস্থিত থাকলেন না আদালতে? এখনও পর্যন্ত তার কাছ থেকে এ ব্যাপারে কোনও প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি।

আপাতত তাই অপেক্ষা ২১ তারিখের। সেদিনই বোঝা যাবে রাবিয়া কী চান।

Leave a Reply