পিলখানা ট্র্যাজেডি: ফুলেল শ্রদ্ধায় শহীদদের স্মরণ

সময়ের কণ্ঠস্বর- বিডিআর বিদ্রোহে নিহত সেনা কর্মকর্তাদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়েছে। রোববার সকালে নিহতদের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এরপর এক মিনিট নীরবতা পালন করে তাদের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করা হয়।

২০০৯ সালের এই দিনে রাজধানীর পিলখানায় নির্মমভাবে হত্যা করা হয় বিডিআরের তৎকালীন ডিজি মেজর জেনারেল শাকিল আহমেদসহ ৫৭ জন সেনাকর্মকর্তাকে। ডিজির স্ত্রীসহ সামরিক-বেসামরিক আরো ১৭ জন মানুষকে হত্যা করা হয় ওই দিন। অফিসারদের স্ত্রী-সন্তান এবং বাবা-মাকে আটকে রেখে নির্মম নির্যাতন চালানো হয়।

দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে কলঙ্কময় দিনগুলোর একটি আজ উদযাপন করছে জাতি। নয় বছর আগে রক্তাক্ত বিদ্রোহের ঘটনায় নিহতদের কবরে রবিবার সকালে প্রথমেই রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের পক্ষে তার সহকারী সামরিক সচিব ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কাজী ইফতেখারুল আলম ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে তার সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, সেনাবাহিনীর প্রধান আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক, নৌবাহিনীর প্রধান এডমিরাল নিজামউদ্দিন আহমেদ, বিমান বাহিনীর প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল আবু এসরার, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন, সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

এ সময় সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা নিহতদের প্রতি স্যালুট প্রদান করেন। পরে তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। এরপর তাদের পরিবারের সদস্যরা শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। রোববার সব সেনানিবাসের কেন্দ্রীয় মসজিদে কোরআন খতমের ব্যবস্থা করা হয়েছে এবং তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে মিলাদ মাহফিল ও বিশেষ মোনাজাতের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

রবি

Leave a Reply