SOMOYERKONTHOSOR

সিরিয়ায় সর্বাধুনিক যুদ্ধবিমান পাঠিয়েছে রাশিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সিরিয়ায় পঞ্চম প্রজন্মের সু-৫৭ মডেলের ১২টি যুদ্ধবিমান পাঠিয়েছে রাশিয়া। বিমানগুলো নিজ অবস্থান গোপন রেখে হামলা চালাতে সক্ষম। মার্কিন সামরিক বাহিনীর এক কর্মকর্তা বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম সিএনএন এ খবর জানায়।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, সিরিয়ায় যুদ্ধরত রাশিয়ার সেনাবাহিনীকে ১২টি যুদ্ধবিমান দেওয়া হয়েছে। চলতি বছরের মধ্যেই বিমানগুলো ব্যবহার করা হবে।

তবে এর আগে সিরিয়া থেকে সামরিক বাহিনী সরিয়ে নেওয়া হবে বলে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এক প্রতিশ্রুতিতে জানান। তবে তা বাস্তবতার মুখ দেখেনি। এরপরই নতুন করে যুদ্ধবিমানগুলো সিরিয়ায় পাঠানো হলো।

এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা বিষয়ক কার্যালয় পেন্টাগনের মুখপাত্র র‍্যানকিন গ্যালোওয়ে বলেন, ‘সিরিয়ার মাটিতে রাশিয়ার উন্নত যুদ্ধবিমানকে আমরা হুমকি হিসেবে দেখছি না। আমাদের বিশ্বাস সিরিয়ার মার্কিন অভিযানে এর কোনো প্রভাব পড়বে না।’

তবে এই যুদ্ধ বিমানগুলো সিরিয়ায় পাঠানোর পেছনে রাশিয়ার সংকল্প এখনো অস্পষ্ট। এতে সিরিয়ার বর্তমান সংকটে প্রভাব পরবে বলে ধারণা করছে অনেকেই।

ধারণা করা হচ্ছে মার্কিন পঞ্চম প্রজন্মের এফ-২২ যুদ্ধ বিমান মোতায়েনের জবাব হিসেবে রাশিয়া পাল্টা জবাব দিলো এটি। আবার অনেকেই বলছেন, নতুন এই যুদ্ধ বিমান পরীক্ষা করার জন্য সিরিয়াতেই এর ব্যবহার করবে রাশিয়া।

সিরিয়ায় এ বিমান মোতায়েনের বিষয়টি রাশিয়া সরকার এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করেনি, তবে রুশ সংসদের সামরিক শিল্প বিষয়ক কমিটির সভাপতি ভ্লাদিমির গুতেনভ বলেছেন, “এ খবরকে আমরা সর্বান্তকরণে স্বাগত জানাচ্ছি।”

তিনি বলেন, এ পদক্ষেপ সন্দেহাতীতভাবে সিরিয়ার প্রতিবেশী কিছু দেশকে রাজনৈতিক বার্তা দেবে যারা মাঝেমধ্যেই সিরিয়ার আকাশ সীমা লঙ্ঘন করে।” গুতেনভ আরো বলেন, যুদ্ধপরিস্থিতিতে এসইউ-৫৭ বিমানের পরীক্ষা করা প্রয়োজন, সে কাজটি এখন সম্পন্ন হবে।

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি