নোয়াখালীর ৩ রাজাকারের ফাঁসি, একজনের কারাদণ্ড

সময়ের কণ্ঠস্বর- মানবতাবিরোধী অপরাধে নোয়াখালীর তিনজনের মৃত্যুদণ্ড ও একজনের ২০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। মঙ্গলবার বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে বিচারপতি মো. শাহীনূর ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক মানবতাবিরোধী অপরাধ ট্রাইবুনাল এই রায় ঘোষণা করেন।

রায় ঘোষণা শুরুতে নেপালের কাঠমান্ডুতে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের প্লেন বিধ্বস্তের ঘটনায় হতাহতদের পরিবারের প্রতি গভীরশোক, দুঃখ ও সহমর্মিতা প্রকাশ করেছে করেন ট্রাইব্যুনাল।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, আমির আহম্মেদ ওরফে রাজাকার আমির আলী, জয়নাল আবদিন এবং আবুল কালাম ওরফে এ কে এম মনসুর। এছাড়া আব্দুল কুদ্দুসকে ২০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

এর আগে গত ৬ ফেব্রুয়ারি ৩১ তম এ মামলায় নোয়াখালীর সুধারমের আমির আলীসহ চার জনের বিরুদ্ধে যে কোন দিন রায় (সিএভি) ঘোষণার জন্য রাখা হয়। ২০১৬ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর এ মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়।

এ মামলায় আসামি ছিল পাঁচজন। এর মধ্যে আসামি মো. ইউসুফ আলী গ্রেফতারের পর অসুস্থ হয়ে মারা যাওয়ায় তাকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।

২০১০ সালে ট্রাইব্যুনাল গঠনের মধ্য দিয়ে একাত্তরের যুদ্ধাপরাধের বিচার শুরুর পর এটি হল ৩১ তম রায়। ২০১৬ সালের ২০ জুন চার আসামিকে হত্যা, লুণ্ঠন ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় অভিযুক্ত করে বিচারকাজ শুরু করেন আদালত।

প্রসিকিউশনের আনা অভিযোগে বলা হয়, মুক্তিযুদ্ধের সময় আসামিরা নোয়াখালীর সুধারামে ১১১ জনকে হত্যা করে।

রবি

Leave a Reply