চাঁপাইনবাবগঞ্জে চাঁদার দাবীতে আটক ২জন উদ্ধার: গ্রেপ্তার-৩

জাকির হোসেন পিংকু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি: চাঁপাইনবাবগঞ্জের একটি আদালতে হাজিরা দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে বৃহস্পতিবার দুপুরে চাঁদার দাবীতে জোর করে আটকে রাখা ২ জনকে গত বৃহস্পতিবার দিবাগত গভীর রাতে শহরের বেলেপুকুর আনসার ক্যাম্পের সামনে গনকা বাগান থেকে উদ্ধার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

Loading ...

এসময় অভিযুক্ত ৩ চাঁদাবাজকে গ্রেপ্তার করা হয়। উদ্ধারপ্রাপ্তরা হলেন,জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার দুর্লভপুর ইউনিয়নের দামুদিয়াড় গ্রামের ইব্রাহিম (২৫) ও গুমানি হক (৩০)। চাাঁদার দাবীতে একই গ্রামের ৪জনকে আটক করে চাঁদাবাজরা।

তবে টাকা আনার জন্য মান্নান (৫৫) ও লাল মোহম্মদকে (৫৭) আগেই ছেড়ে দেয় তাঁরা। চাঁদার দাবীতে ৪জনকে আটকের অভিযোগে গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন দামুদিয়াড় গ্রামেরই ফারুক আহমেদ (২৮),জামালউদ্দীন (৫০) ও শিবগঞ্জের রানিহাটি এলাকার রিটু (৪০)। গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) গোলাম রসুল জানান, ৪ জন বৃহস্পতিবার দুপুরে একটি মামলায় হাজিরা দিয়ে কোর্ট এলাকার গ্রীনভিউ স্কুলের সামনে দিয়ে অটোরিক্সায় চড়ে বাড়ী ফিরছিলেন। দুপুর ১টার দিকে ৮/৯ ব্যক্তি অটোরিক্সাটি মোটরসাইকেলে ঘিরে ফেলে বেলেপুকুর আনসার ক্যাম্পের সামনে গনকা আমবাগান এলাকায় নিয়ে যায়। তাঁরা ৪জনের নিকট ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে তাদের আটকে রাখে।

এক পর্যায়ে তারা টাকা আনার জন্য লাল মোহম্মদ ও আবদুল মান্নানকে ছেড়ে দেয়। ছাড়া পেয়ে মান্নান সদর থানায় চাঁদাবাজির অভিযোগে মামলা করেন। ঘটনার তদন্ত গোয়েন্দা পুলিশে ন্যস্ত হলে পুলিশ টাকা দেয়ার কথা বলে আটককারীদের সঙ্গে যোগাযোগ করে।

এক পর্যায়ে রাত ১২টার দিকে টাকা দেবার কথা ব্েযল গনকা বাগানে অভিযান চালিয়ে আটককৃতদের উদ্ধার ও ৩ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তবে এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় আরও ৫/৬ জন। পুলিশ জানায়, একই গ্রামের দুটি পক্ষের মধ্যে মোকদ্দমা নিয়ে পূর্ব থেকেই বিরোধ ছিল। এরই জেরে ঘটনাটি ঘটে। গ্রেপ্তারকৃতদের শুক্রবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।