বাঞ্ছারামপুরে ভ্রাম্যমান ‘ইয়াবা ব্যবসায়ী পৌর কর্মচারী’!

ফয়সল আহমেদ খান, বাঞ্ছারামপুর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া)প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর পৌরসভার কম্পিউটার অপারেটর মো.ফারুক মিয়াকে পুলিশ ইয়াবা,চোরাই মটরসাইকেল ও ইয়াবা বিক্রির টাকাসহ হাতেনাতে গ্রেফতার করে মাদক আইনে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।

বাঞ্ছারামপুর মডেল থানার অফিসার্স ইনচার্জ মো.নিজামউদ্দিন এবং অভিযান পরিচালনাকারী এএসআই মো.আবু জাফর,এএসআই হানিফ জানায়-‘দীর্ঘদিন ধরে পৌরসভার ষ্টাফ ফারুকের বিরুদ্ধে মাদক বিক্রির অভিযোগ আসছিলো।গতকাল (বৃহস্পতিবার) রাত ১০ টার পর উপজেলার ফতেপুর গ্রামে চোরাই মোটরসাইকেল ‘পালসার’ যোগে ইয়াবা বিক্রির সময় হাতেনাতে গ্রেফতার করি।তার কাছ থেকে ১শত ৫০পিস ইয়াবাসহ বিক্রির নগদ ৩ হাজার টাকাও জব্দ করা হয়’।

খোজ নিয়ে জানা গেছে,পৌরসভার কম্পিউটার অপারেটর ও বাঞ্ছারামপুর পৌর শ্রমীক লীগের সভাপতি তারা মিয়ার ছেলে ফারুকের বিরুদ্ধে মটর সাইকেল যোগে কাষ্টমারের অর্ডারনুযায়ী ইয়াবাসহ বিভিন্ন প্রকার মাদক উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে চড়াদামে বিক্রি করার অভিযোগ আসছিল।অবশেষে গ্রেফতার হলে আজ (শুক্রবার) পুলিশ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা কারাগারে প্রেরণ করে।

এই বিষয়ে পৌর মেয়র খলিলুর রহমান টিপু মোল্লা জানায়,-‘ফারুক গুরুতর অন্যায় করেছে।দুদিন সরকারি বন্ধ থাকায় আমরা কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারছি না।রবিবার সরকারি বিধি মোতাবেক তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে’।