বরিশালে বাস-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে প্রাণ গেল ২ জনের

বরিশাল প্রতিনিধি- বরিশালে যাত্রীবাহি বাসের সাথে মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে এক কলেজ ছাত্রসহ ২ যুবকের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। শনিবার (১৭ মার্চ) বেলা ৩ টার দিকে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের কাশিপুর নামক স্থানে এ দূর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলো বরিশালের উজিরপুর উপজেলার গুঠিয়া এলাকার রফিকুল আলমের ছেলে আশিক (২৬) ও রুইয়া এলাকার হুমায়ুন মিয়ার ছেলে মীম (২৬)।

এদের মধ্যে নিহত আশিক উজিরপুরের গুঠিয়া আইডিয়াল কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্র। অপরদিকে দূর্ঘটনায় গুরুত্বর আহত হয়েছেন মোটরসাইকেলের অপর আরোহী বরিশালের উজিরপুর উপজেলার গুঠিয়া এলাকার বাসিন্দা ফারুক হোসেন (২৮)।

থানা পুলিশ, স্বজন ও প্রতক্ষদর্শী সূত্রে জানাগেছে, নিহত আশিকের মোটরসাইকেল যোগে তিন বন্ধু মিলে বরিশাল শহর থেকে উজিরপুরের গুঠিয়ার উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলো।বেলা সাড়ে ৩ টার দিকে কাশিপুর ইনফ্রা পলিটেকনিক কলেজ অতিক্রমকালে তাদের বহনকারী মোটরসাইকেলের সাথে বিপরীতমুখি হিমেল-হিরক নামের একটি যাত্রীবাহি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলে মোটরসাইকেলের ৩ আরোহী গুরুত্বর আহত হয়। থানা পুলিশ তাদের উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক বেলা সাড়ে ৩ টায় আশিক ও মীমকে মৃত ঘোষনা করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডাঃ মাহাবুব জানান, জরুরী বিভাগে আনা হলে প্রথমে তাদের নাম পরিচয় জানা যায়নি। যুবকদের মধ্যে আনুমানিক ২৬ বছরের ২ জনের হাসপাতালে আনার আগেই মৃত্যু হয়। তাদের মৃতদেহ হাসপাতালের লাশ রাখা কক্ষে প্রেরণ করা হয়েছে। অপরদিকে আনুমানিক ২৮ বছরের এক যুবককে মুমুর্ষ অবস্থায় অর্থোপেডিক্স ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালের ওয়ার্ড মাষ্টার আবুল কালাম জানান, সাথে থাকা মোবাইলের সহায়তায় স্বজনদের খবর দেয়া হলে নিহত আশিকের খালা এসে তার মৃতদেহ সনাক্ত করেছে। পাশাপাশি তিনিই মীম নামে অপর নিহতের মৃতদেহ সনাক্ত করেছেন। আহত ফারুকের সাথে থাকা ভোটার আইডি কার্ড থেকে তার পরিচয় জানাগেছে।

এদিকে ঘাতক বাসটিকে জব্দ করা হলেও এর চালক ও হেলপার পালিয়ে গেছে তাই তাদের আটক করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের এয়ারপোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন।

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি