'সবাইকে অনুরোধ করছি, বাংলাদেশকে নিয়ে কেউ ট্রোল করবেন না'

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক- বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচ মানেই টানটান উত্তেজনা। মাঠ-গ্যালারি ছাড়িয়ে সেই উত্তেজনার রেশ ছড়িয়ে পড়ে টিভি সেটের সামনে বসে থাকা দর্শকদের মাঝেও। ম্যাচের আগে ও পরে থাকে অনেক হিসাব-নিকাশ, আলোচনা আর সমালোচনা।

রোববার (১৮ মার্চ) নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে বাংলাদেশ-ভারত লড়াইয়ের আগে বিদ্বেষে মেতে উঠেছিল ভারতীয় সমর্থকরা। সেই সাথে যোগ হয়ে কিছু ভারতীয় টিভি চ্যানেলে ‘অকথ্য’ ভাষায় বাংলাদেশ দলকে উপস্থাপিত করা হয়।

‘নিউজ ২৪’ নামে একটি ভারতীয় চ্যানেল বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার ম্যাচ নিয়ে একটি রিপোর্ট করেছে। ১ মিনিট ৫০ সেকেন্ডের ওই ভিডিও রিপোর্টে ছিল মিথ্যাচারে ভরা বাংলাদেশ বিদ্বেষ। সেখানে বাংলাদেশ দলকে বিশ্ব ক্রিকেটের ‘বেয়াদব’ দল উল্লেখ্য করে টাইগারদের বিরুদ্ধে আইসিসি’র কাছে কড়া শাস্তির দাবি তুলেছে ভারতীয় ওই সংবাদ মাধ্যমটি।

ওই রিপোর্টে ছিল মিথ্যাচারের ভরপুর এ আজগুবি কথাবার্তায় পূর্ণ। নিউজপ্রেজেন্টার জানান, ভারতকে ফাইনালে মোকাবেলা করতে হবে বিশ্বক্রিকেটের ‘বেয়াদব’ দল বাংলাদেশকে। ভারতীয় ওই মিডিয়ার ভাষায় বাংলাদেশ নাকি নো বল নিয়ে ‘নাটক’ করেছে। এবং আম্পায়ারের সাথে বেয়াদবি করেছে।

এদিকে নিউজের ক্লিপে সংবাদ পাঠককে আরো বলতে শোনা যায়, ওইদিন বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা নাকি বেয়াদবি করেছে, গুণ্ডাগিরি করেছে মাঠে। আর শ্রীলঙ্কার খেলোয়াড়রা নাকি টাইগারদের বোঝানোর চেষ্টা করেছে! কিন্তু নিউজ প্রেজেন্টার ভুলেও বললেন না, সোহানকে মাঠে ধাক্কা মেরেছিল কে?

অবশ্য আগেও বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচে নানা সমালোচনা করতো ভারতীয় মিডিয়া। এবারও ফাইনালে ভারতের জয়ের আগে পরে থেকে কিছু উগ্র ভারতীয় সমর্থক স্যোশাল মিডিয়ায় বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের নিয়ে ট্রোল শুরু করে। বিভিন্ন উস্কানীমূলক ছবি ও বিভিন্ন ভিডিও পোস্ট করে ব্যঙ্গ করা শুরু করে।

এবার এই বিষয়ে ফাইনালে ম্যাচের শেষ বলে ভারতকে জেতানোর নায়ক দিনেশ কার্তিক মুখ খুললেন স্যোশাল মিডিয়ায়। সবাইকে বিশেষ অনুরোধ জানিয়েছেন যাতে বাংলাদেশকে নিয়ে কেউ ট্রোল না করেন। ঢাকা প্রিমিয়ার লীগের দুটি ছবিসহ তিনি ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন, পোস্টটিতে তিনি লিখেন-

সবাইকে অনুরোধ করছি, বাংলাদেশকে নিয়ে কেউ ট্রোল করবেন না। দিনেশ কার্তিক বাংলাদেশের সাথে ভালো সম্পর্ক রেখেছে এবং কয়েক বছর আগেও ঢাকা প্রিমিয়ার লীগে খেলেছেন। সেখানে সাকিব, তামিম, লিটন ও তাসকিনের মতো ক্রিকেটার ছিলেন। তারা সবাই আমার ভাই ছিল।

তাই সকল অনুসারীর প্রতি অনুরোধ করবো, আমাদের প্রতিবেশী বাংলাদেশকে ট্রোল করা বন্ধ করে ক্রিকেট খেলাকে উপভোগ করুন।

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি