আশা জাগিয়েও হারলেন ‘দ্য আনটোল্ড স্টোরি’ ধোনি

স্পোর্টস ডেস্ক- আইপিএলে চেন্নাইকে ৪ রানে হারিয়ে দ্বিতীয় জয় পেল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। প্রথম দুই ম্যাচ বসিয়ে রাখা হয়েছিল গেইলকে। এমন কিছু যে তাঁর মোটেও পছন্দ হয়নি সেটা বোঝাতেই যেন নেমেছিলেন আজ। শেন ওয়াটসনের বলে ইমরান তাহিরের কাছে ক্যাচ দিয়ে ফেরার আগে আজ গেইল ৩৩ বলে ৬৩ (৭ চার ও ৪ ছক্কা) করেছেন। গেইলঝড় থামলেও সবার চেষ্টায় স্কোরবোর্ডে ১৯৭ রান তোলে পাঞ্জাব।

তাড়া করতে নেমে একদম বাজে শুরু করে চেন্নাই। সপ্তম ওভারের মধ্যেই তিন উইকেট হারিয়ে ফেলে ধোনির দল। চেন্নাইয়ের রান তখন ৫৬। ধোনির উইকেটে আবির্ভাব তখন। আম্বাতি রাইডুকে নিয়ে স্রোতের বিরুদ্ধে লড়া শুরু হলো। ৭ ওভারে ৫৭ রানের জুটি গড়ে রাইডু ফিরলেন ৪৯ রানে। কিন্তু ধোনি তো ছিলেন। চেন্নাইয়ে তাঁর বহুদিনের সঙ্গী রবীন্দ্র জাদেজাও হাজির হলেন উইকেটে। দুজনে মিলে পাল্টা আক্রমণে গেলেন। ২৮ বলে ৫০ রানের জুটিতে পাঞ্জাবকে ভয় পাইয়ে দিতে শুরু করেছিলেন দুজন।

কিন্তু যখনই ফিনিশিং লাইনের দেখা মিলছিল তখনই আউট জাদেজা (১৯)। ১০ বলে ৩৫ রান দরকার চেন্নাইয়ের। টাইয়ের তৃতীয় বলে ছক্কা, পরের বলেই চার। ৮ বলে লাগবে ২৫ রান! শেষ বলে আরও এক ছক্কায় সেটা দাঁড়াল ৬ বলে ১৭-তে!

প্রথম বলে ডোয়াইন ব্রাভোর এক রান। পরের বলে ডট। পরের বলে ওয়াইড। ৪ বলে দরকার ১৫। তৃতীয় বলে ইয়র্কার লেংথের বল পয়েন্ট ও গালির মাঝ দিয়ে চার মারলেন ধোনি। চতুর্থ বল ডট! পঞ্চম বল বাউন্ডারিতে গেল, কিন্তু কোনো রান নিলেন না ধোনি। শেষ বলে ঠিকই ছক্কা মারলেন কিন্তু দলের জয়টা আর এনে দিতে পারলেন না। ১৯৩ রানেই সন্তুষ্ট হতে হলো চেন্নাইকে। ৪৪ বলে ৬ চার ও ৫ ছক্কায় ৭৯ রানে অপরাজিত ধোনি।

সময়ের কণ্ঠস্বর/মহিআ