এগুলো এড়িয়ে গেলেই চোখের জন্য মহাবিপদ!

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ

স্পর্শকাতর একটি অঙ্গ চোখ। প্রযুক্তির কল্যাণে এখন এমন অনেকেই আছেন, যারা সারাদিন কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপে কাজ করেন। তার ওপর মোবাইলে ব্যস্ততা রয়েছেই। আর দীর্ঘসময় ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসে কাজের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে চোখ।

কম্পিউটার হোক কিংবা মোবাইল অথবা টিভি, অত্যধিক ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসের দিকে তাকিয়ে থাকার ফলে প্রায়ই আমাদের চোখে নানারকম সমস্যা হতে থাকে। এর বেশিরভাগই আমরা এড়িয়ে চলি। যেমন- চোখ থেকে পানি পড়া, চোখ লাল হয়ে যাওয়া, মাথা যন্ত্রণা, চোখ শুকিয়ে যাওয়া প্রভৃতি। এসব কিছু মোটেই এড়িয়ে যাওয়া উচিত নয়। মারাত্মক কিছু রোগের পূর্ব লক্ষণ এগুলি।

চোখ ভালো রাখার কয়েকটি সহজ উপায় জেনে নিন-

১. চোখ ভালো রাখতে গেলে সারাদিনে প্রচুর পরিমাণে পানি খাওয়া প্রয়োজন। রোজ অন্তত ৬ থেকে ৮ গ্লাস পানি খেতে হবে। ফলে একদিকে যেমন চোখ পরিষ্কার এবং সুস্থ থাকবে, তেমনই ডিহাইড্রেশনেরও চিন্তা থাকবে না।

২. প্রত্যেক দিনের ডায়েটে তাজা ফল এবং সবজি রাখতে হবে। ফল এবং সবজি চোখকে বিভিন্ন রোগের প্রকোপ থেকে রক্ষা করে।

৩. একটানা অনেকক্ষণ ডিজিট্যাল স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে থাকা চলবে না। মাঝে মাঝে স্ক্রিন থেকে চোখ সরান। প্রতি ২০ মিনিট অন্তর কিছুক্ষণের জন্য কম্পিউটার, মোবাইল, টিভি স্ক্রিন থেকে চোখ সরিয়ে রাখুন।

৪. প্রসাধনী চোখের জন্য ক্ষতিকর। অতিরিক্ত প্রসাধনী চোখে ব্যবহার করলে অ্যালার্জিক কনজাংটিভাইটিস, ব্লেফারাইটিস, স্টাই ইত্যাদি রোগ হওয়ার আশঙ্কা বেশি থাকে।

৫. রোদে বের হলে ইউভি প্রোটেকশনযুক্ত সানগ্লাস ব্যবহার করুন। যাতে সূর্যের প্রখর তাপ চোখে লাগতে না পারে। এছাড়া চোখ ভালো রাখতে ধূমপান করা বন্ধ করতে হবে।

৬. স্কুলে ভর্তির আগে পারলে চোখের ডাক্তার দেখিয়ে নিন।

৭. সবার বছরে একবার চোখ পরীক্ষা করানো উচিত৷

৮. ডায়াবেটিস থাকলে সুগার নিয়ন্ত্রণের সাথে সাথে অবশ্যই চোখ দেখানো উচিত। কেননা ডায়াবেটিস চোখের সাংঘাতিক ক্ষতি করে