কমোডে ফ্লাশ করে থমকে গেলেন মিস্ত্রিরা!

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

পানি আটকে যাওয়ায় নল পরিষ্কার করতে এসে কল মিস্ত্রি হতবাক। তিনি যা দেখেন, তার জন্য প্রস্তুত ছিলেন না। শেষে পুলিশকে পর্যন্ত খবর দিতে হয়। পুলিশ এসে শিশুকন্যার লাশটি উদ্ধার করে।

ভারতের কেরালার পেরিন্থালমান্নারে শৌচাগারের সুয়ারেজ পাইপ থেকে উদ্ধার ২ দিনের শিশুকন্যার দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ওই কল মিস্ত্রিরা পানির লাইন পরিষ্কার করতে গিয়েই নবজাতকের লাশ উদ্ধার করেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, কেরালা শহরের বাসিন্দা এক চিকিৎসক দম্পতির চেম্বারের শৌচাগার থেকে উদ্ধার করা হয় দেহটি। গত বৃহস্পতিবার শৌচাগার পরিষ্কার করতে গিয়ে সেই চেম্বারের পরিচারিকা দেখেন, কমোড থেকে পানি সরছে না। সে কথা সেই চিকিৎসককে জানান তিনি।

এরপর সেই চিকিৎসক স্থানীয় এক কল মিস্ত্রিকে খবর দিলে শুক্রবার বিকেলে চিকিৎসকের চেম্বারে পৌঁছান তিনি। সুয়ারেজ পাইপ খুলতেই দেখা যায় একটি শিশুর মাথা। সঙ্গে সঙ্গে পুলিশকে খবর দেন সেই চিকিৎসক। পুলিস এসে সেই কল মিস্ত্রির সহযোগিতায় দেহটি উদ্ধার করে।

সেই চিকিৎসকের দাবি, কোনো রোগী তাকে দেখাতে এসে শিশুকন্যাকে ফেলে দিয়ে যেতে পারে। ঘটনায় অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Leave a Reply