বাউফলে দুই চেয়ারম্যানের সংঘর্ষে ইউপি সদস্যের মৃত্যু, গ্রেপ্তার ৭

বাউফল প্রতিনিধি- পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার নওমালা ইউনিয়নে শনিবার বেলা সাড়ে বারোটার দিকে দুই পক্ষের সংঘর্ষের সময় রফিক হাওলাদার (৪৮) নামের এক ইউপি সদস্যের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। রফিক ওই ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য। পুলিশ এ ঘটনায় সাত জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনকে কেন্দ্র করেই এই দুই পক্ষের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এক পক্ষে আছেন বর্তমান নওমালা ইউপি চেয়ারম্যান মো. শাহজাদা হাওলাদার। অপর পক্ষে আছেন নওমালা ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান সম্পাদক মো. কামাল হোসেন বিশ্বাস।

বাউফল-দুমকি থানার সহকারী পুলিশ সুপার মো. ফারুক হোসেন জানান, শনিবার বর্তমান চেয়ারম্যান মো. শাহজাদা হাওলাদার তার সমর্থকদের নিয়ে পটুয়াখালী থেকে নওমালা আসলে সাবেক চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট কামাল হোসেন বিশ্বাসে সমর্থকরা ভাঙ্গা ব্রীজের কাছে পথরোধ করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। এসময় ইউপি সদস্য রফিক হাওলাদারের বাম পাজরে একটি ইটের আঘাত লাগে। এসময় সে অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয় চিকিৎসা শেষে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

এদিকে এ ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত সন্দেহে পুলিশ কামাল হোসেন বিশ্বাসের সমর্থক ফয়সাল মৃধা (২৫), ফয়েজ বিশ্বাস (২৫), নাঈম (১৫), হুমায়ুন কবির (২১), আল আমিন (৩০), সোহরাব মৃধা (৫৫) ও সাইফুল ইসলাম (৩৫) কে গ্রেপ্তার করেছে।

বাউফল থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, রফিকের লাশ ময়না তদন্তের জন্য পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে এলাকায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সময়ের কণ্ঠস্বর/মহিআ

Leave a Reply