আড়াইহাজারে স্কুল ছাত্র হৃদয় হত্যার মূল হোতা মোমেন গ্রেফতার

এম এ হাকিম ভূঁইয়া, আড়াইহাজার প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র হৃদয়কে পুড়িয়ে হত্যার মূল হোতা রাশেদুল ইসলাম মোমেনকে ঘটনার ৯ দিনের মাথায় গ্রেফতার করতে পেরেছে পুলিশ।

আজ দিবাগত রাত ১টায় ময়মনসিংহ এলাকার নান্দুয়াইন থেকে তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হন পুলিশ। আড়াইহাজার থানার ওসি এম এ হক গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে ঘটনাস্থল থেকে গ্রেফতার হন নিহত হৃদয়ের মা শেফালি। এরই মধ্যে নারায়ণগঞ্জ চীফ জুডিশিয়ার ম্যাজিস্ট্রেট ২য় আদালতে ১৬৪ ধারায় তিনি কথিত প্রেমিক মোমেনকে দায়ি করে জবানবন্দিও দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ১৩ এপ্রিল রাত সাড়ে তিনটায় ঘরে ঢুকে মা শেফালির সঙ্গে পরকীয়া প্রেমের জের ধরে মনমালন্যের এক পর্যায়ে শেফালিকে এ্যালার্জির ট্যাবলেট কৌশলে সেবন করিয়ে অজ্ঞান করে ঘুমন্ত দুই সহোদর হৃদয় ও জিহাদের গায়ে কাঁথা পেঁচিয়ে আগুন ধরিয়ে পালিয়ে যায় রাশেদুল ইসলাম মোমেন। ভাগ্যক্রমে ওই রাতে বেঁচে যায় ছোট ছেলে স্থানীয় ৩৫ নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীর পড়ুয়া জিহাদ। তবে দগ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মর্মান্তিক মৃত্যু হয় একই বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীতে পড়ুয়া বড় ছেলে হৃদয়ের। এ ঘটনার এরই মধ্যে দোষিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করে হৃদয়ের বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবক মহল বিদ্যালয়ের চত্বরে মানববন্ধনও করেছেন।

আড়াইহাজার থানার ওসি তদন্ত শফিকুল ইসলাম বলেন, মামলার প্রধান আসামি এবং শেফালির কথিত প্রেমিক রাশেদুল ইসলাম মোমেনকে বিশেষ প্রযুক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে গভীর রাতে ময়মনসিংহের এলাকার নান্দুয়াইন থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সময়ের কণ্ঠস্বর/এফপিএম

Leave a Reply