২০ টাকা নিয়ে স্ত্রীর সঙ্গে বিবাদ, পরিণতি স্বামীর মৃত্যু!

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃরয়োজন তো থাকেই, থাকবেও। তবে স্বামীকে না বলে তাঁর পকেট থেকে টাকা নেওয়া বা ‘পকেটকাটা’ দাম্পত্য প্রেমের প্রকাশও তো বটে। স্বামীর যা কিছু, তা তো আমারই, এই অধিকারবোধ থেকেই কি স্বামীদের পকেট কাটেন স্ত্রীরা? উত্তর জানা নেই।

কিন্তু, ঘটনা হল, না বলে পকেট থেকে টাকা নেওয়া নিয়ে স্ত্রীর সঙ্গে বিবাদের জেরেই প্রাণ গেল এক ব্যক্তির। অভিযোগ, তাঁকে পিটিয়ে মেরে ফেলেছেন শ্বশুরবাড়ির লোকেরাই। ঘটনাটি ঘটেছে হাওড়ার জগৎবল্লভপুরের নস্করপুর দোলুইপাড়ায়। ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মৃতের নাম কুশ দোলুই। পেশায় তিনি কৃষক। রবিবার সকালে কুশ খেয়াল করেন, তাঁর জামার পকেটে কুড়ি টাকা কম। কুড়ি টাকা কোথায় গেল? জানতে চাইলে স্ত্রীর সঙ্গে তুমুল অশান্তি হয় কুশ দোলুইয়ের। পরে অবশ্য বাড়ির উঠোন থেকে কুড়ি টাকা পাওয়া যায়। এরপর আকারণে তাঁকে দোষারোপ করার জন্য স্বামীকে ফের দু’কথা শুনিয়ে দেন কুশের স্ত্রী। ব্যাপারটা তখনকার মতো মিটে যায়।

চাষের কাজ করতে মাঠে চলে যান কুশ দোলুই। প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, স্বামী চলে যেতেই গোটা ঘটনাটি বাপেরবাড়ির লোকেদের জানান ওই ব্যক্তির স্ত্রী। খবর পাওয়ামাত্রই মেয়ের বাড়িতে চলে আসেন তাঁরা। জামাইকে বাড়িতে না পেয়ে সোজা মাঠে চলে যান কুশ দোলুইয়ে স্ত্রীর বাপেরবাড়ির লোকেরা। শুরু হয় বেদম প্রহার। মারের চোটে মাঠেই লুটিয়ে পড়েন বছর পঁয়তাল্লিশের কুশ দোলুই।

তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান স্থানীয় বাসিন্দারা। কিন্তু, শেষরক্ষা হয়নি। ওই ব্যক্তিকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। ঘটনায় স্থানীয় থানার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। গ্রেপ্তার ৩। ঘটনায় হতবাক স্থানীয়রা। মাত্র ২০ টাকার জন্য জামাইকে শ্বশুরবাড়ির লোকেরা পিটিয়ে মেরে ফেলেছেন! মানতে পারছেন না অনেকেই।

Leave a Reply