আমতলীতে অস্ত্রের মুখে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ

এম এ সাইদ খোকন, বরগুনা প্রতিনিধি:  বরগুনার আমতলীতে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে কাওসার হাওলাদার অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। রবিবার (২০ মে) সকাল ১০ টায় উপজেলার তারিকাটা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

 

জানাগেছে, অপহৃত ছাত্রী তার দুই বান্ধবী সকাল ৯টায় শিক্ষক মহিউদ্দিনের কাছে গণিত প্রাইভেট পড়তে স্কুলে যায়। প্রাইভেট থেকে বাড়ি ফেরার পথে তারিকাটা গ্রামের পান্নু হাওলাদারের ছেলে কাওসার হাওলাদার তার সহযোগি কামাল ও সবুজসহ ৫/৬ জন বখাটে ভিকটিম স্কুলছাত্রীকে জোড়পূর্বক তুলে নেয়ার চেষ্টা করে। এ সময় ভিকটিম স্কুলছাত্রী ও তার বান্ধবীরা তাদের প্রতিহতের চেষ্টা করে।

 

এক পর্যায় বখাটেরা দেশীয় অস্ত্র দেখিয়ে স্কুলছাত্রীকে মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে যায়। খবর পেয়ে আমতলী থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।প্রত্যক্ষদর্শী স্কুল ছাত্রী সুমাইয়া ও জুলিয়া জানান, আমরা বখাটেদের জুতা দিয়ে মারধর করে প্রতিহত করার চেষ্টা করি।

 

কিন্তু বখাটেরা অস্ত্র দেখিয়ে আমাদের বান্ধবীকে মোটরসাইকেলে তুলে কলাপাড়ার দিকে নিয়ে যায়।স্কুলছাত্রীর বাবা বলেন, বখাটে কাওসার দীর্ঘদিন ধরে আমার মেয়েকে উত্যাক্ত করে আসছে। এ ঘটনা বখাটের বাবা পান্নু হাওলাদারকে জানালেও তিনি কোনো প্রতিকার করেননি।

 

আমি প্রশাসনের কাছে আমার মেয়েকে উদ্ধারের দাবি জানাই। তারিকাটা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইউনুস আলী বলেন, প্রাইভেট পড়ে বাড়িতে যাওয়ার সময় বখাটেরা স্কুলছাত্রীকে মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে গেছে। এ ঘটনা তদন্তে পুলিশ বিদ্যালয়ে এসেছিল।আমতলী থানার ওসি সহিদ উল্যাহ বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। স্কুলছাত্রীকে উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।