SOMOYERKONTHOSOR

এমপিওভুক্তির দাবিতে আবারও আন্দোলনে নামার হুমকি

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক:এমপিওভুক্তির দাবিতে ফের আন্দোলনে নামার হুমকি দিয়েছেন নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশন। আগামী অর্থবছরের বাজেটে এমপিওভুক্তিতে অর্থ বরাদ্দের দাবি জানিয়েছেন। বরাদ্দ না রাখা হলে ১০ই জুন থেকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ফের লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি পালন করবেন।

বুধবার সকালের ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করে এ হুমকি দিয়েছেন সংগঠনের নেতারা। তবে আন্দোলনের নামে পাঠদান বন্ধ রেখে অস্থিরতা তৈরি করতে না পারে সে জন্য গোয়েন্দা সংস্থা তৎপরতা শুরু করেছে বলে সূত্র জানিয়েছে।

অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলারের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বিনয় ভূষণ রায়।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, সরকারের আশ্বাসে আন্দোলন স্থগিত করে বাড়ি ফিরে যাই। আমরা বিভাগে বিভাগে সমাবেশ করে প্রধানমন্ত্রীর এমপিওভুক্তির প্রতিশ্রুতির জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছি। কিন্তু দুঃখের বিষয়, ৪ মাসের অধিককাল সময় অতিবাহিত হলেও এখনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির দৃশ্যমান কোনো প্রক্রিয়া আমাদের নজরে আসেনি। ২০১০ সালের মে মাসে এমপিওভুক্তির আবেদন চাওয়া হয়েছিল। এ বছর এখনো কোনো আবেদন চাওয়া হয়নি। আসন্ন বাজেটে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তি খাতে কোনো বরাদ্দ থাকছে কিনা তাও আমরা জানতে পারিনি। বাজেটে অর্থ বরাদ্দ না থাকলে এমপিওভুক্তির বিষয়টি অনিশ্চিত হয়ে পড়বে। এমন পরিস্থিতিতে উৎকণ্ঠা ও সংশয় থেকে আজকের এই সংবাদ সম্মেলন।

তিনি অভিযোগ করেন, এমপিওভুক্তির কার্যক্রম শুরু না করে নীতিমালা এবং গ্রেডিং করতে গেলে সময়ক্ষেপণ এবং জটিলতার উদ্ভব ঘটবে। স্বীকৃতিই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির একমাত্র মানদণ্ড হিসাবে গণ্য করতে দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, অধিকাংশ শিক্ষক-কর্মচারীরা ১৫-২০ বছর ধরে বিনা বেতনে চাকরি করছেন। অনেকের চাকরি আছে মাত্র ৫-১০ বছর। এ কারণে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে আর অপেক্ষায় না রেখে চলতি সরকারের মেয়াদে এই সমস্যার সমাধান করতে হবে। তিনি আরও বলেন, স্বীকৃতিপ্রাপ্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে কিছু এমপিওভুক্ত করার উদ্যোগ নিলে অসুস্থ প্রতিযোগিতার উদ্ভব ঘটবে। সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তি করা না হলে বন্ধ হয়ে যাবে। সকল স্বীকৃতিপ্রাপ্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হলে আমরা কম বেতন নিতেও রাজি।

এই শিক্ষক নেতা বলেন, আগামী বাজেটে এমপিওর জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ না রাখলে আমাদের বাঁচা মরার মানবিক আবেদন নিয়ে রাজপথে নামতে বাধ্য হবেন। এ সময় তিনি কর্মসূচিও ঘোষণা করেন। ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী ২৮ মে ঢাকার কর্মসূচি সফল করার লক্ষ্যে সকল জেলায় প্রস্তুতিসভা। ১০ই জুন থেকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি পালন করবেন। এর আগে একই দাবিতে গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর থেকে চলতি বছরের ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান ও অনশন কর্মসূচি পালন করেন।