অন্যতম সেরা নিদর্শন তাজমহলের ফটকে হামলা, রড-হাতুড়ি দিয়ে প্রবেশদ্বার ভাঙার চেষ্টা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মুঘল স্থাপত্যশৈলীর অন্যতম সেরা নিদর্শন তাজমহলের ফটকে গত রোববারের হামলায় বিশ্ব হিন্দু পরিষদের (ভিএইচপি) একদল কর্মী জড়িত ছিল বলে অভিযোগ উঠেছে। রোববার হামলার সময় লোহার রড ও হাতুড়ি দিয়ে তাজমহলের প্রবেশদ্বারটি ভাঙার চেষ্টা করা হয়। তবে বুধবার পর্যন্ত এই ঘটনায় কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

ভিডিও ফুটেজে হামলাকারীরদের শনাক্ত করা গেলেও কেন এখনও ‘ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইট’-এর ওপর হামলা চালানোর ঘটনায় কাউকে গ্রেপ্তার করা হলো না তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানানো হয়েছে।

তাজমহলের কাছেই একটি এলাকায় নির্মাণ কাজের জন্য বন্ধ রাখা হয়েছে জায়গাটি। তৈরি করা হয়েছে তাজের একটি অস্থায়ী ফটক। ভিএইচপির দাবি, এসব কারণে ৪০০ বছরের পুরনো একটি শিবমন্দিরে যেতে অসুবিধা হচ্ছে তাদের। শিবমন্দিরে তাদের প্রবেশে নাকি বাধা দিচ্ছে দেশের প্রত্নতাত্ত্বিক সর্বেক্ষণ (এএসআই)। সেই কারণেই তারা শুধুমাত্র প্রতিবাদ জানিয়েছে। বাসাই ঘাটের দিকে পশ্চিম প্রবেশদ্বার ভাঙচুরের চেষ্টা চালানোই শুধু নয়, প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ যে অস্থায়ী ফটক নির্মাণ করেছিল, তা-ও ওই দিন সরিয়ে নিয়েছে ভিএইচপি কর্মীরা।

আগ্রা পুলিশ বলছে, সিদ্ধেশর মহাদেব মন্দির নামে ওই মন্দিরে যাওয়ার জন্য পৃথক রাস্তাও করে দেওয়া হয়েছে। তবে তাতে মোটেও খুশি নয় ভিএইচপি। তাই ‘এএসআই হঠাও’ স্লোগান দিয়ে রোববার তাজমহলের সামনে বিক্ষোভ দেখায় তারা। অভিযোগ, এএসআইয়ের সিদ্ধান্তেই মন্দিরে যেতে বাধা পড়ছে তাদের।

ওই ঘটনায় ভিএইচপির পাঁচ সদস্য এবং আরও বেশ কয়েকটি অজ্ঞাতপরিচয় সংগঠনের বিরুদ্ধে লুটপাট চালানো, সরকারি কর্মকর্তাদের ওপর হামলা, কর্তব্যপালনে বাধা দেওয়া এবং দাঙ্গা বাধানোর চেষ্টার অভিযোগে এফআইআর দায়ের হয়েছে।