মৃত্যু পথযাত্রী ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পাওয়া স্কুলছাত্রী পূজা, মরণ ব্যাধি ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত!

নড়াইল প্রতিনিধি: নড়াইলের লোহাগড়া পৌর এলাকার মৃত রুপ কুমার শিকদারের এক মাত্র মেয়ে পূজা শিকদার। লোহাগড়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির মেধাবী ছাত্রী। পিতৃহীন মেয়েটির লেখাপাড়ার খরচ যোগাড় এবং সংসারের চাকা সচল রাখতে মা সুবর্ণা শিকদার মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ঝিয়ের কাজ করেন। ২০১৭ সালে নড়াইলের লোহাগড়া মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পঞ্চম শ্রেণিতে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পেয়েছিল।

সেই পূজা আজ মৃত্যু পথযাত্রী। মরণ ব্যাধি ব্লাড ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত। সে বাঁচতে চায়! তাকে বাঁচিয়ে তোলার জন্য বিত্তবানদের নিকট সাহায্যে আবেদন জানিয়েছে তার পরিবার। পূজা শিকদারের শরীর দিন দিন শুকিয়ে আসছে। খাবারেও নেই তার কোনো রুচি। এমন অবস্থায় স্থানীয় ডাক্তারের কাছে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায় তার পরিবার। পরীক্ষা নিরীক্ষা করে ৯ জুলাই ধরা পড়ে তার শরীরে মরণ ব্যাধি ব্লাড ক্যান্সার রোগ। আকাশ ভেঙ্গে পড়ে স্বজনদের মাথায়। দিশেহারা হয়ে পড়ে মা সুবর্ণা বিশ্বাস।

বর্তমানে পুজাকে উন্নত চিকিৎস্যার জন্য স্থানীয়দের সহযোগিতায় ঢাকার আনোয়ার খান মর্ডাণ হাসপাতালে ভর্তি করেছেন তার মা। সেখানে ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ ডা. কর্নেল মনিরুজ্জামানের তত্বাবধানে পুজা চিকিৎসাধীন আছে।

এ প্রসঙ্গে ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এসএম হায়াতুজ্জামান জানান, ‘আমি পুজাকে দেখতে ঢাকায় গিয়েছি। চিকিৎসকরা অত্যন্ত আন্তরিকতার সঙ্গে তাকে সুস্থ করার চেষ্টা করছেন। পুজার বর্তমান অবস্থা জীবন-মৃত্যুর মাঝামাঝি। তার চিকিৎসায় প্রায় ৭-৮ লাখ টাকা খরচ হবে।’

পুঁজার মা সুবর্ণা শিকদার বিত্তবানদের নিকট আকুতি জানিয়ে বলেন,পরের বাড়ি কাজ করে আমার একমাত্র মেয়েকে কোনো রকম বড় করেছি। ঠিক মত তাকে পেট ভরেও খেতে দিতে পারিনি। পুজার ৫ বছর বয়সে তার বাবা বিদ্যুৎস্পর্শে মারা যায়। পিতৃহারা এই মেয়েকে চিকিৎসা করানোর মতো অর্থ আমার নেই। দেশবাসীর নিকট আমার আবেদন ‘আমার একমাত্র মেয়েকে আপনারা বাঁচান।

sharing-is-caring!
Share on facebook
Share with others
Share on google
Share On Google+
Share on twitter
Share On Twitter
You May Also Like:
  • Recent Updates
  • Top Views News