উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের তদন্ত নিয়ে অসন্তোষ

৮:১৫ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, জুলাই ১৭, ২০১৮ দেশের খবর, মফস্বল সংবাদ

পত্নীতলা (নওগাঁ) প্রতিনিধি :: নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার রবিউল ইসলাম এর বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগের তদন্ত গতকাল ১৬ জুলাই অনুষ্ঠিত হয়। তদন্তকারী অফিসার অভিযোগকারীদের না জানিয়ে গোপনে অফিসে কথিত দায়সাড়া নামে মাত্র তদন্তের অভিযোগ উঠায়, তা প্রত্যাখান করে পুনরায় তদন্তের দাবী জানিয়েছেন স্থানীয় শিক্ষক ও অভিভাবকরা।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, পত্নীতলা উপজেলা শিক্ষা অফিসার রবিউল ইসলাম গত ২০১৫ সালে যোগদানের পর থেকে একাধিক অনিয়ম ও দুর্নীতি করে আসছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। ২০১৬-১৭ অর্থ বছরের প্রাথমিকের স্লীপ প্রকল্পের অর্থ প্রতিটি বিদ্যালয়ের কাছ থেকে ৫-১০ হাজার টাকা কমিশন বাণিজ্যের সংবাদ জাতীয় দৈনিক এ ১৫ অক্টোবর ২০১৭ সালে প্রকাশিত হয়। এ সংবাদের পরিপ্রেক্ষিতে অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত কর্মকর্তা হিসেবে ১৬ জুলাই ২০১৮ ইং তারিখে তদন্ত করতে আসেন দিনাজপুর জেলা প্রাথমিক অফিসার তৌফিকুর রহমান। কিন্তু, তদন্তকারী অফিসার অভিযোগকারীদের না জানিয়ে গোপনে শিক্ষা অফিসে বসে কথিত দায়সারা নামে মাত্র তদন্ত করার আবারো অভিযোগের তীর ওঠেছে। তদন্ত প্রত্যাখান করে পুনরায় তদন্তের জোর দাবি জানিয়েছেন, স্থানীয় শিক্ষক ও অভিভাবকরা।

পত্নীতলা উপজেলা শিক্ষা অফিসার রবিউল ইসলামের সাথে তার মন্তব্য জানতে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে, সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে কলটি কেটে দেন।

এ বিষয়ে তদন্তকারী অফিসার তৌফিকুর রহমান পক্ষপাতের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমাকে ভুল বুঝতেছেন অভিযোগকারীরা। সকলকেই জানানোর জন্য চিঠি ইস্যু করা হয়েছে বলেও তিনি দাবি করেন।