মন্দির দর্শনে আসা ১২০ জন নারীকে ধর্ষণ!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ১২০ জন মহিলাকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল এক তান্ত্রিকের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত তান্ত্রিকের নাম বাবা অমরপুরী। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ইতিমধ্যে ওই তান্ত্রিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

তবে যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছে অমরপুরী নিজেই। পুলিশকে ঘুষ না দেওয়ার জন্য তাকে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসানো হয়েছে, এমনটাই দাবি করেছে অমরপুরী নিজেই। ঘটনার তদন্ত শুরু করে হরিয়ানার পুলিশ।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, হরিয়ানার একটি মন্দিরে সেবায়েতের কাজ করত অমরপুরী। অভিযোগ, মন্দির দর্শনে আসা মহিলা ভক্তদের সে ভুলিয়ে নির্জন স্থানে নিয়ে যেত।

তার পর সেখানেই চলত নির্যাতন। ধর্ষণের ভিডিও রেকর্ড করে রাখত অমরপুরী। পরে সেই ভিডিও দেখিয়ে মহিলাদের ব্ল্যাকমেল করে ফের ধর্ষণ করত সে।

কয়েক দিন আগে এক মহিলার অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্তে নামে পুলিশ। তার পরেই মন্দিরের মধ্যে অমরপুরীর ঘরে অভিযান চালানো হয়। সেখান থেকে উদ্ধার হয় প্রায় ১২০টি ধর্ষণের ভিডিও ফুটেজ। প্রত্যেকটি ভিডিও ফুটেজই ভিন্ন ভিন্ন মহিলাদের ছিল বলে দাবি পুলিশের।