নওগাঁয় প্রসূতির চার মাস বয়সে অকাল গর্ভপাতে ৬ শিশুর মৃত্যু

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক: নওগাঁয় এক প্রসূতির চার মাস বয়সে অকাল গর্ভপাতে ছয়টি সন্তানের জন্ম হয়। দুই দফায় শিশুগুলো স্বাভাবিকভাবে প্রসব হয়। তবে ভূমিষ্ঠ হওয়ার পর পরই মারা যায়। ছয়টির মধ্যে তিনটি মেয়ে ও তিনটি ছেলে।

নওগাঁ সদর হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডে শিশুগুলো একনজর দেখতে শত শত লোকজন ভিড় করেন। ওই গৃহবধূ নওগাঁ শহরের খাস-নওগাঁ মহল্লার অটোচার্জার চালক আলম শেখ ওরফে রানা শেখের স্ত্রী মৌসুমি আক্তার (২২)।

গৃহবধূর পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, আট বছর আগে তাদের বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তাদের কোনো সন্তান নেই। দীর্ঘ সময় পর মৌসুমি আক্তার গর্ভবতী হন। গত এক মাস আগে সদর হাসপাতালে আলট্রাসোনোগ্রাম করে জানতে পারেন তার গর্ভে ছয়টি বাচ্চা আছে।

শনিবার সকাল ৯টার দিকে স্বাভাবিকভাবে পাঁচটি শিশু ভূমিষ্ঠ হয়। প্রসবকালীন সময়ে চিকিৎসককে সহযোগিতা প্রদানকারী সিনিয়র স্টাফ নার্স জাহানারা বেগম জানিয়েছেন, ভূমিষ্ঠ হওয়ার সময় শিশুগুলো জীবিত ছিল। তাদের স্পন্দন লক্ষ্য করা গেছে। কিন্তু পরে তারা ক্রমেই মৃত্যুবরণ করেছে। ছয়টির মধ্যে তিনটি মেয়ে ও তিনটি ছেলে সন্তান। তবে প্রসূতি সুস্থ আছেন বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে।

শুক্রবার সকালে মৌসুমি আক্তারের পেটে ব্যথা শুরু হয়। অকাল গর্ভপাতে সকাল সাড়ে ৭টার দিকে বাড়িতে একটি মৃত সন্তান প্রসব হয়। এরপর তিনি সারাদিন বাড়িতেই ছিলেন। তবে প্রসূতির শারীরিক অবস্থা খারাপ হতে থাকলে রাত ৯টার দিকে নওগাঁ সদর হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়।