ব্যানারে ‘শিবির ছাত্রলীগ’ লিখে বিক্ষোভ মিছিল করলো স্বয়ং ছাত্রলীগ নেতারা!

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নিজ হাতে প্রতিষ্ঠা করেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ । সেই থেকে এ দেশের আন্দোলন সংগ্রামে ব্যাপক ভূমিকা রেখেছে এই সংগঠনটি। বর্তমানে এই ছাত্র সংগঠনটি এশিয়ার একটি বৃহৎ ছাত্র সংগঠন। অথচ সেই সংগঠনটির নাম বিকৃত করে শনিবার (২১ জুলাই) বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে সাতক্ষীরার কাালিগঞ্জে উপজেলা ছাত্রলীগের ব্যানারে সাবেক জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী নুর হোসেন রনি, কালিগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ইলিয়াস হোসেনের নেতৃত্বে কতিপয় নামধারী ছাত্রলীগ নেতা। যার কারণে সারাদেশের ছাত্রলীগের হাজার হাজার নেতা কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায,শনিবার কতিপয় নামধারী ছাত্রলীগ নেতারা সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এর বহিস্কারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করে। ওই বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধনের ব্যানারে লেখা ছিলো“ কালিগঞ্জ উপজেলা শিবির ছাত্রলীগের সভাপতি এর বহিস্কারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন’। বিক্ষোভ মিছিলের ওই ব্যানারটি স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দের দৃষ্টিগোচর হলে তারা এর প্রতিবাদ করে। কিন্তু বিক্ষোভকারী ওই নেতারা সেটির কোন তোয়াক্কা না করে ওই ব্যানারটি নিয়েই মিছিল করে। শুধু মিছিল করে তারা ক্ষ্যান্ত হয়নি মিছিল শেষে বক্তব্য দেওয়ার সময় তারা একাধিক বার শিবির ছাত্রলীগ বলে স্লোগান দিয়েছে।

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শেখ ইমরান হোসেন বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের পবিত্র নামটি যারা বিকৃত করে মিছিল ,সমাবেশ ও ফেসবুকে ছবি পোষ্ট করতে পারে তারা কখনও বঙ্গবন্ধুর সৈনিক হতে পারে না। এদের মধ্যে বঙ্গবন্ধুর কোন আদর্শ নেই। এরা সংগঠনের মধ্যে প্রবেশ করে ছাত্রলীগকে ধ্বংস করার মিশনে লেগেছে।

কালিগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ শাওন আহমেদ সোহাগ বলেন, ব্যানারে যারা কালিগঞ্জ উপজেলা ‘শিবির ছাত্রলীগ’ লিখতে পারে তারা কখনও বঙ্গবন্ধুর সৈনিক হতে পারে না। জামায়াত শিবিরের একটি চক্র কালিগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের নামে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। ব্যানারের ওই লেখাটি দেখে সেটি বোঝা যাচ্ছে।

সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী নুর হোসেন রনি বলেন, কালিগঞ্জ ছাত্রলীগের সভাপতি শিবির হতে ছাত্রলীগে প্রবেশ করায় আমরা ব্যানারে শিবির ছাত্রলীগ লিখে তার বিরুদ্ধে মিছিল ও মানববন্ধন করেছি। অপর একটি প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ব্যানারে ‘শিবির ছাত্রলীগ’ লেখাটি আমাদের উচিৎ হয়নি। ব্যাপারটি এমন হবে আমরা বুঝতে পারিনি।

এ ব্যাপারে সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল ইসলাম রেজা বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি। এমনকি মানববন্ধনের ছবিটাও আমি দেখেছি। তারা যে কাজ করেছে সেটা সম্পূর্ণ সংগঠন বিরোধী। তারা যদি সংগঠনের সাথে জড়িত থাকে তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।