পারিবারিক কবরস্থানে চির নিদ্রায় রাজীব মীর

এস আই মুকুল, নিজস্ব প্রতিবেদক :: চট্টগ্রাম ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক, লেখক-সাহিত্যিক ও গবেষক রাজীব মীরেকে অশ্রুসিক্ত নয়নে চির বিদায় জানালেন ভোলার মানুষ।

২৩ জুলাই (সোমবার) তার গ্রামের বাড়ি ভোলা সদর উপজেলার পরানগঞ্জ বাজারে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়। এর আগে সোমবার সকালে তার মরদেহ ঢাকা থেকে ভোলায় পৌঁছলে সকাল ৯টায় ভোলা সরকারি স্কুল মাঠে তার প্রথম জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। এর পর সকাল ১০টায় তার গ্রামের বাড়ি পরানগঞ্জ বাজারে দ্বিতীয় জানাযা শেষে তাকে পারিবারিক কবস্থানে দাফন করা হয়।

গত শুক্রবার দিবাগত রাতে ভারতের চেন্নাইয়ে গ্লিনিগলস গ্লোবাল হেলথ সিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়ে ছিলো ৪২ বছর।

বেশ কয়েক মাস ধরে লিভার সিরোসিসে ভুগছিলেন রাজীব মীর। চলতি সপ্তাহে তার অপারেশন ও লিভার পরিবর্তনের কথা ছিল। কিন্তু অস্ত্রোপচারের আগেই সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন তিনি।

রাজীব মীর ভোলা সদর উপজেলার বাপ্তা নিবাসী ও পরানগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক মোফাজ্জল হোসেন মীরের একমাত্র ছেলে। ৩ ভাই বোনের মধ্যে রাজীব সবার বড়। ২০১৬ সালে রাজীব মীর সুমনা খানের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। বর্তমানে তাদের ঘরে বিভোর নামে ১৫ মাস বয়সী একটি কন্য সন্তান রয়েছে।
তাঁর এই অকাল মৃত্যুতে ভোলায় শোকের ছায়া নেমে আসে। রাজীব মীরের মৃত্যুতে ভোলার বিভিন্ন সামাজিক ও পেশাজীবী সংগঠনের পক্ষ থেকে শোক জানানো হয়েছে। সেই সাথে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেছে। আগামীকাল মঙ্গলবার বাদ আসর তার গ্রামের বাড়ি পরানগঞ্জ বাজারে আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত দোয়া মাহফিলে সকলকে শরিক হওয়ার জন্য পরিবারের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হয়েছে।