লাইলী-মজনুর মতই ইতিহাসের পাতায় নাম লেখালেন প্রেমিক যুগল!

রায়হান মাহবুব, ইবি প্রতিনিধি: প্রেমের সম্পর্ক মেনে না নেওয়ায় ইবি’র শিক্ষার্থী প্রেমিক যুগলের আত্মহত্যা, পারিবারিকভাবে প্রেমের সম্পর্ক মেনে না নেওয়ায় কারণে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) মুনতা হেনা মুমু নামে এক ছাত্রী আত্মহত্যার পর দুই ঘন্টা পর একই সেশনের তার প্রেমিক রোকনুজ্জামান আত্মহত্যা করেছে। উভয়ে ইবির ফিন্যান্স এ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের ২০১১-১২ সেশনের শিক্ষার্থী।

গতকাল সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে নিজ সয়ন কক্ষে ফ্যানের সাথে ঝুলে মুমতা হেনা আত্মহত্যা করে এ খবর শেনার পর রাত সাড়ে ৮টার দিকে তার প্রেমিক মতি মিয়া রেলগেট এলাকায় ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করে।

জানা যায়, ইবির আল হাদিস এ্যান্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের চেয়ারম্যান ড. আশরাফুল আলমের মেয়ে মুনতাহেনার সাথে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন তার সহপাঠী রোকনুজ্জামান। পারিবারিকভাবে তাদের প্রেমের সম্পর্ক মেনে না নেওয়ায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঝিনাইদহ শহরের ঝিনুক টাওয়ারের পঞ্চম তলায় নিজ সয়ন কক্ষে মধ্যে ফ্যানের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস নেন হেনা।

এদিকে প্রেমিকার আত্মহত্যার খবর শুনে নিজেকে আর ধরে রাখতে পারেননি কুষ্টিয়া শহরের পিয়ারাতলার একটি ছাত্রাবাসে থাকা রোকনুজ্জামান। রাত সাড়ে ৮টার দিকে সদর উপজেলার মতি মিয়ার রেলগেইট নামক স্থানে পোড়াদহ থেকে ছেড়ে যাওয়া গোয়ালন্দগামী শাটল ট্রেনের নীচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করে রোকনুজ্জামান। তার বাড়ি চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা এলাকায়।

ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা (ওসি) শেখ এমদাদুল হক জানান, গতকাল সন্ধ্যায় ঝিনাইদহ শহরের ঝিনুক টাওয়ারের পঞ্চম তলায় সয়ন কক্ষে ফ্যানের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস নেওয়া এক ইবির ছাত্রীর লাস উদ্ধার করা হয়েছে। এখনো আত্মহত্যার কারণ জানা যায়নি তদন্ত চলছে।

পোড়াদহ জিআরপি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল আজিজ জানান, কুষ্টিয়ার সদর উপজেলার মতি মিয়া রেলগেট এলাকায় পোড়াদহ থেকে গোয়ালনন্দগামী ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে এক যুবক আত্মহত্যা করেছে। তার বাড়ি চুয়াডাঙ্গায় এবং সে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র। ওই ছাত্রের লাশ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ইতোমধ্যে চুয়াডাঙ্গায় ইবি শিক্ষার্থী রোকনুজ্জামানের জানাজার নামাজ সম্পন্ন হয়েছে। এবং সাতক্ষীরায় মুনতাহেনার জানাজার নামাজ বেলা ১২টায় অনুষ্ঠিত হবে বলে তাদের সহপাঠিরা জানিয়েছে।

এদিকে শিক্ষার্থীদ্বয়ের অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ শাহিনুর রহমান ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোঃ সেলিম তোহা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ অফিস কর্তৃক পাঠানো এক যৌথ শোকবার্তায় তারা বলেন, রোকনুজ্জামান এবং হেনার পরিবারের সাথে আজ আমরাও বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সদস্যরা শোকাহত ও ব্যথিত। তাঁরা বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সদস্যদের উদ্দেশ্যে বলেন, জীবনে চলার পথে ঘাত-প্রতিঘাত এবং যে কেন সমস্যা আসতেই পারে। কিন্তু আত্মহত্যা কোন সমস্যার সমাধান হতে পারে না। এ ধরনের অকাল মৃত্যু কারো কাম্য নয়।

তাঁরা আরও বলেন, রোকনুজ্জামান এবং হেনা চলে গেছে না ফেরার দেশে কিন্তু তাদের রেখে যাওয়া স্মৃতি পিতা-মাতার পাশাপাশি শিক্ষক হিসেবে আজীবন আমাদেরকে বয়ে বেড়াতে হবে। উপাচার্য, উপ-উপাচার্য ও কোষাধ্যক্ষ মরহুম ও মরহুমার আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

Sharing is.

Share on facebook
Share with others
Share on google
Share On Google+
Share on twitter
Share On Twitter
  • You May Also Like:
  • Top Views
আলোচিত বাংলাদেশ

চকবাজারে ড. কামাল

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক :: চকবাজারের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার পেছনে মূল কারণ এবং দায়ীদের