কোয়েলের ডিমের উপকারিতা

জানা-অজানা: দিনে দিনে বেশ জনপ্রিয় হচ্ছে কোয়েল ও কোয়েলের ডিম। অনেকেই আছেন যারা কোয়েল পাখির ডিম খেতে খুব পছন্দ করেন। আকারে ছোট হলেও এটি খেতে বেশ সুস্বাদু। পুষ্টিগুণের দিক দিয়েও এটি অনন্য। মাঝারি আকারের কোয়েল পাখি ইউরোপ,উত্তর আফ্রিকা, যুক্তরাষ্ট্র এবং এশিয়ার অনেক দেশে পাওয়া যায়। বর্তমানে আমাদের দেশেও বাণিজ্যিক ভিত্তিতে কোয়েল পাখি পালন করা হয়।

কোয়েলের ডিমে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ থাকে যা দৃষ্টিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট চোখে ছানি পড়া প্রতিরোধ করে।

কোয়েলের ডিমে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে উপকারী ফ্যাটি এসিড রয়েছে যা হৃৎপিন্ডকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

মুরগীর ডিমের মতোই কোয়েলের ডিমেও উচ্চ পরিমাণে প্রোটিন থাকে। যা নতুন সেল, টিস্যু,মাংসপেশী, হাড় গঠন এবং রক্ত চলাচলে সহায়তা করে।

কোয়েলের ডিমে ভিটামিন বি থাকে, যেটা শরীরে এনজাইম ও হরমোনের কাজ উন্নত করে খাবার দ্রুত হজমে সাহায্য করে।

পটাশিয়াম থাকার কারণে কোয়েলের ডিম উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে।

ডিটক্সিফিকেশনে কোয়েলের ডিম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়মিত খেলে এটি শরীর থেকে টক্সিন বের করতে এবং রক্ত চলাচল স্বাভাবিক করতে সাহায্য করে। সেই সঙ্গে কিডনিতে পাথর জমা প্রতিরোধ কিংবা মূত্রথলি সুস্থ রাখার জন্যও এটি উপকারী।

কোয়েলের ডিমে থাকা ভিটামিন এ, সি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট দীর্ঘস্থায়ী রোগের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলে। সেই সঙ্গে সারাদিন কর্মক্ষমতা বজায় রাখতে সাহায্য করে। সূত্র: অর্গানিক ফ্যাক্টস