হাতির ধূমপান দেখেছেন? (ভিডিও)

অবাক পৃথিবী ডেস্ক :: ভারতে একটি বুনো হাতি তার মুখ দিয়ে আগুনের ধোঁয়া বের করছে, এমন এক ভিডিও দেখে হতবাক হয়ে গেছেন বিশ্বের বন্যপ্রাণী বিশেষজ্ঞরা।

ভারতের ওয়াইল্ডলাইফ কনজারভেশন সোসাইটির বিজ্ঞানী বিনয় কুমার এমনই একটি ৪৮ সেকেন্ডের ভিডিও ধারন করেছেন। ২০১৬ সালের এপ্রিলে কর্টোক প্রদেশের নগরহোল জঙ্গলে কাজ করতে গিয়ে এমন বিরল দৃশ্যের দেখা পান তিনি।

বিনয় কুমার জানান, তিনি ভিডিওটি কখনো প্রকাশ করেননি কারণ আগে তিনি এর গুরুত্ব বুঝতে পারেননি। বিজ্ঞানীরা বলছেন তারা নিশ্চিত না যে কেন এমনটা ঘটল। হাতিটির কী ধুমপান করতে ইচ্ছা হয়েছিল? ভারতের ওয়াইল্ডলাইফ কনজারভেশন সোসাইটির একটি বিবৃতিতে বলা হয়, “কোন বুনো হাতির এমন কান্ডের এটিই প্রথম ভিডিও ডকুমেন্টেশন। এবং এটি দেখে বিজ্ঞানী আর বিশেষজ্ঞরা ধাঁধায় পড়ে গিয়েছেন।

ভিডিও দেখে যা বোঝা গেল, সেখানে আগে থেকে তৈরি এক আগুনের কয়লা সেই হাতিটি খেয়ে ফেলেছিল, তারপর ধোঁয়াগুলো বের করে দিয়েছে। আর যা দেখা গেছে তাতে মনে হচ্ছিলো হাতিটি ধূমপান করছে। সে তার শুঁড়ের ভেতর কিছুটা ছাই নিয়ে তা মুখের কাছে নিচ্ছে আর তারপরে সেগুলো ধূমপায়ীরা যেভাবে ধোঁয়া ছাড়ে সেভাবে উড়িয়ে দিচ্ছিলো। আর বাকিটুকু সে গিলে খেয়ে নিচ্ছিলো।

তিনি জানান, কয়লা বিষ নামানোর জন্য বেশ কার্যকর একটি পদার্থ। এটি পুষ্টিকর কোন খাবার না হলেও অনেক বন্যপ্রাণী এর ঔষধি গুণের কারণে এর প্রতি আকৃষ্ট হয়। তাছাড়া কয়লা হজমে সহায়ক। তাই পশুরা জঙ্গলে আগুন লাগলে, বজ্রপাত হলে কিংবা মানবসৃষ্ট নিয়ন্ত্রিত আগুনের স্থান থেকে কয়লা খেয়ে থাকে।