সংবাদ শিরোনাম
চীন সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী | কলেজ ও মাদ্রাসার বইয়ের বিপুল পরিমাণ নকল কপি জব্দ! | বাংলাদেশি যুবককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে খুন করলো এক ভারতীয় নারী | নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে সেমিফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখল পাকিস্তান | ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি গেমসে রাবির শিরিন ও যবিপ্রবির উজ্জ্বল | সন্ত্রাসীদের সঙ্গে যুদ্ধ করেও স্বামীকে বাঁচাতে পারলেন না তিনি…… | স্ত্রীকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা | কিশোরগঞ্জে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার, অবৈধ পাচার বিরোধী র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত | ঠাকুরগাঁওয়ে কলেজছাত্রী ধর্ষনের শিকার, আটক-১ | লক্ষ্মীপুরে ইয়াবা বিক্রয়ের অভিযোগে নারীসহ আটক-২ |
  • আজ ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশের পাশের দেশেই শহরজুড়ে ব্যানার টানিয়ে প্রেমিকার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা!

১০:৫২ অপরাহ্ণ | রবিবার, আগস্ট ১৯, ২০১৮ ইন্টারনেট রঙ্গ, চিত্র বিচিত্র

অবাক পৃথিবী ডেস্ক :: এমনটা হয়তো সিনেমায় দেখা যায়। নায়িকার সাথে অভিমান হওয়ার পর নায়ক ক্ষমা চাইছেন, সেই মর্মে শহরের আনাচে কানাচে শোভা পাচ্ছে বিলবোর্ড, ব্যানার।

শহরের মুখ প্রায় ঢেকে গেছে সেসব ‘বিজ্ঞাপনে’। এমন ঘটনাই বাস্তবে ঘটল ভারতের মহারাষ্ট্রের পিম্পরি চিঞ্চোয়াড়ে।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, পুণের নিকটবর্তী এই শহরের বাসন্দারা হঠাৎই লক্ষ করেন, ‘শিভডে, আই অ্যাম সরি’ লেখা এবং একটি লাভ সাইন সম্বলিত ব্যানারে ছেয়ে গিয়েছে শহর। বিশেষ করে শহরের বিশেষ বিশেষ ট্রাফিক জয়েন্টগুলিতে সুবিশাল ব্যানারে শোভা পাচ্ছে এই কথা ক’টি।

পরে জানা গেছে, এই কাণ্ডের পিছনে রয়েছেন নীলেশ খেড়েকর নামের এক ২৫ বছেরে যুবক। তিনি পেশায় ব্যবসায়ী। প্রেমিকার সঙ্গে বিচ্ছেদ সইতে না পেরেই তিনি শহর ভর্তি করে দিয়েছেন প্রায় ৩০০ ব্যানার ও বিলবোর্ডে।

বলাই বাহুল্য, এই সব ব্যানার ও হোর্ডিং বেআইনি। শহর জুড়ে এই কাণ্ড শোভা পেতে থাকায় মাথা ঘামাতে বাধ্য হয়েছে স্থানীয় পুলিশ। তারা খেড়েকরের বন্ধু বিলাস শিন্ডেকে খুঁজে বের করেছে।

বিলাস এই ব্যানারবাজিতে খেড়েকরকে সাহায্য করেছিলেন বলেই জানা গিয়েছে। বিলাসই জানিয়েছেন, বান্ধবীর সঙ্গে ঝগড়ায় জড়িয়ে পড়েন খেড়েকর। তারপরেই অনুতপ্ত হয়ে এই কাণ্ড করার সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

তার বান্ধবীর মুম্বাই থেকে পিম্পরি চিঞ্চোয়াড় ফেরার কথা। সেটা চিন্তা করেই ক্ষমা প্রার্থনার এই আজব কায়দাটি করেন খেড়েকর। পুলিশ অবশ্য প্রেমের এই প্রাবল্যে একটুও খুশি নয়। তারা রীতিমতো সিরিয়াসলি খোঁজ চালাচ্ছে।