‘আল্লাহ এবং নবীর পরে শেখ হাসিনা আমার ধারক ও বাহক’ রাজাপুরের সভায় বললেন মনিরুজ্জামান

জাকির সিকদার,রাজাপুর(ঝালকাঠি)প্রতিনিধিঃ রাজাপুরে ২১ আগষ্টকে পালনের মধ্যে দিয়ে সংসদীয় নমিনেশনের প্রত্যাশায় কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের উপ কমিটির সহ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির বলেছেন,বাবা মৃতের ৭ বছর বয়স থেকে আওয়ামী লীগের দলে আজও আমি আমার বুকে আল্লাহ এবং নবীর পরে শেখ হসিনা মা কে বাহক ও ধারন করে চলি,রাজাপুরের একটি মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে দলকে সুসংগঠিত করতে মূল আওয়ামী দলীয় কর্মীর বিকল্প নাই,আমি ও আমার সহকর্মীদের কে নিয়ে রাজাপুর ও কাঠালিয়াতে উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে আজকেও ৩ লক্ষ টাকা প্রধানমন্ত্রীর মাধ্যমে চেক গরীব দুঃখীর মাঝে বিতরন করা হল ২১ আগষ্টের কথা স্মরন করিয়ে দিতেই এ সভা করা।
মঙ্গলবার ২১ আগষ্ট উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা মিলনায়তনে এক শোক সভার আয়োজন করেন কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ নেতা  মনিরুজ্জামান মনির।উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম স্বপন তালুকদারের সভাপতিত্বে এক শোক সভা দুপুরে অনুষ্ঠিত হয়।
এসভায় বক্তব্য রাখেন রাজাপুর ইউনিয়নের তাতীলীগের সভাপতি জাকির সিকদার,রাজাপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আবদুল বারেক ফরাজী,উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সভাপতি নান্নু, আওয়ামীলীগের উপজেলা সাংগঠনিক সম্পাদক রিয়াজ মাতুব্বর,আওয়ামীলীগ জেলা সদস্য মেজবাহ উদ্দীন মাসুদ সিকদার,মুক্তিযোদ্ধা আলতাফ হোসেন, ঢাকা আওয়ামী নেতা বাবলু, সুলতান,ঢাকার কেন্দ্রীয় সাবেক ছাত্রলীগের সদস্য সহ সহযোগী নেতৃবৃন্দ্র।
 বিএনপি নেতা শাহজাহান ওমরের কে হুশিয়ারী করে মনিরুজ্জামান বলেন,আজ রাজাপুরে আওয়ামীলীগের বহু লোক হলেও আপনার মত নেতা বিগত আমলে ছিলনা,বিএনপির ঘাটিতে আজ আওয়ামীলীগের মাটিতে ঘাটিতে পরিনত করতে সক্ষম হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের পদক্ষেপে।আপনী সাবধান থাকুন আগামী নির্বাচনে বরিশালের মত আপনার অবস্থান ইদুরের মত। দাপট ভয় দেখিয়ে আমাকে হত্যার উদ্দশ্যে ধরে নিয়েছিলেন,তখনই আমি মৃতকে ভয় পাইনী,তখনও আওয়ামী কথা বলেছি,আজও বলি এবং বলব।