ফরিদপুরে বাস চাপায় কলেজ ছাত্রীর মৃত্যু

হারুন-অর-রশীদ,ফরিদপুর প্রতিনিধিঃ ফরিদপুর-বরিশাল মহাসড়কে নগরকান্দা উপজেলার মাশাউজান নামকস্থানে বাসের ধাক্কায় মনোহরপুর এমএ শাকুর মহিলা কলেজের দ্ধাদশ শ্রেণীর মেধাবী ছাত্রী শারমিন আক্তার নিহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ এলাকাবাসি ফরিদপুর- বরিশাল মহাসড়কে অবরোধ করলে রাস্তার উভয় পাশে প্রায় ২০ কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়।

জানা গেছে, খালার বাড়ী যাওয়ার উদ্দেশ্যে শারমিন আক্তার বুধবার সকাল সাড়ে এগারোটার দিকে বাড়ি থেকে বের হয়ে রাস্তার পাঁশে মশাউজান বাসষ্টানে দাঁড়িয়ে ছিলো।

এসময় ঢাকাগামী সেবা গ্রীন লাইন পরিবহনের একটি দ্রুতগামী বাস সজোরে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই শারমিনের মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় এলাকাবাসি উত্তেজিত হয়ে ফরিদপুর-বরিশাল মহাসড়কে প্রায় ৩ ঘন্টাব্যাপী অবরোধ করে রাখে। এতে মহাসড়কের উভয় পাশে প্রায় ২০ কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে যাত্রীরা চরম দুর্ভোগে পরেন।

নগরকান্দা থানা পুলিশ, হাইওয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা সেখানে পৌছে প্রায় দুই ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করেন।

নিহত শারমিন আক্তার নগরকান্দা উপজেলার বিলনালিয়া গ্রামের ইয়াছিন শেখের মেয়ে বলে জানা গেছে। সে তার নানা বাড়ী ডাঙ্গী ইউনিয়নের কৃঞ্চনগর গ্রামে মামা বাড়িতে থেকে পড়াশুনা করতো।

খবর পেয়ে ফরিদপুর জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়া ছুটে যান শারমিনের পরিবারকে সান্তনা দিতে। এ সময় তার সাথে ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বদরুদ্দোজা শুভ, ডাঙ্গী ইউপি চেয়ারম্যান কাজী আবুল কালাম। জেলা প্রশাসক এসময় শারমিনের দাফন সম্পন্ন করার জন্য তার মা করিমন বেগমের হাতে ১০ হাজার টাকা তুলে দেন।