সিনেমার পরিচালকরাই আমাকে ব্ল্যাকমেইল করেছে: নায়িকা মুনমুন

বিনোদন ডেস্ক- বাংলা চলচ্চিত্রের এক সময়ের আলোচিত নায়িকা মুনমুন সম্প্রতি একটি টিভি অনুষ্ঠানে আসেন। এসময় তিনি বাংলা চলচিত্রের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন।

২০০২ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত সিনেমায় ছিলেন না মুনমুন। এই সময় বেশি অশ্লীল সিনেমা হয়েছে এমনই দাবি করে চিত্রনায়িকা বলেন, ‘আমি অশ্লীল যুগে খুব বেশি সিনেমা করিনি। আমার একচেটিয়া মার্কেট ছিল অ্যাকশন হিরোইন হিসেবে। আমি অশ্লীল ছিলাম তার প্রমাণ কেউ দিতে পারবেন না। আমাকে আমার সিনেমার পরিচালকরা ব্ল্যাকমেইল করেছে। তাদের নাম বললেই কি আমার সম্মান ফিরে আসবে না?’

তিনি বলেন, অ্যাকশননির্ভর ছবিতে প্রচুর মারপিটের দৃশ্য থাকত। যেহেতু অ্যাশকন ছবি, তাই একটু খোলামেলা দৃশ্য যোগ করা হতো; কিন্তু আমার কোনো খোলামেলা দৃশ্য ছিল না সেসব সিনেমায়। বাস্তবতা হল- অন্য নায়িকারা যে ড্রেস পরেছে, আমিও সেই ড্রেস পরেছি। আমি সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিকে অনেক ভালোবাসি।

মুনমুন বলেন, ব্ল্যাকমেইলাররা এখন নেই। তাদের হাতে কাজও নেই। যারা বলেন- আমার জন্য সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি ধ্বংস হয়েছে, তারাই আসলে সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি ধ্বংস করেছে। কারণ যারা সেলেবল আর্টিস্টের বিরুদ্ধে মিথ্যে কলঙ্ক দেন, তারা ফিল্মের কোনো ভালো করতে পারেন না। এখন আর সেই পরিচালকদের নাম বলে লাভ নেই। তিনি আরও বলেন, অশ্লীল সিনেমায় তখন সবাই অভিনয় করেছেন। কিন্তু অশ্লীল দৃশ্যে তো তারা অভিনয় করেননি।

উল্লেখ্য, বিরতির পর মুনমুন ২০০৮-এ অভিনয়ে ফিরে ‘বাংলার কিংকং’ ও ‘কুমারী মা’- এ দুটি সিনেমা করে আবারও ফিরে যান। মাঝে অনেক দিন ছিলেন আলোচনার বাইরে। বর্তমানে আবারও সিনেমা নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন তিনি। ‘দুই রাজকন্যা’, ‘রাগী’, ‘তোলপাড়’, ‘পাগলপ্রেমী’, ‘পদ্মার প্রেম’- এমন বেশ কিছু সিনেমায় অভিনয় করেছেন এরই মধ্যে।

Sharing is.

Share on facebook
Share with others
Share on google
Share On Google+
Share on twitter
Share On Twitter
  • You May Also Like:
  • Top Views