ইরাকে যেতে দালালকে দেয়া টাকা ফেরত চাওয়ায় যুবককে হত্যার চেষ্টা!

ষ্টাফ রিপোর্টার, মাদারীপুর :: ইরাকে যাওয়ার জন্য দালালকে টাকা দিয়ে না যেতে পেরে, টাকা ফেরত চাওয়ায় জীবন হারাতে বসেছিল মাদারীপুর সদর উপজেলার কুনিয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের নিসাবদী এলাকার রিয়াজ খান। রিয়াজ এখনো হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে।

বুধবার সকালে এ ব্যাপারে সদর থানায় মামলা হলেও এখনো কেউ গ্রেফতার হয়নি। এছাড়া হত্যা চেষ্টা করার প্রতিবাদে অসহায় পরিবার ও এলাকাবাসী সদর উপজেলার নিসাবদী এলাকায় বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সভা করেছে।

মামলা ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ১লা সেপ্টেম্বর শনিবার রাত সাড়ে ৯টায় দিকে মাদারীপুর সদর থানাধীন ঘটকচর বাজার থেকে একাই পায়ে হেঁটে বাড়ি যাচ্ছিলেন, এসময় পেয়ারপুর মকবুল হোসেন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাছে আসলে একটি মাইক্রোবাসে থাকা খলিল চৌকিদার, দিসান চৌকিদার, সুমনসহ আজ্ঞাত আরো ৩জন পথ রোধ করে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। রিয়াজকে বিভিন্ন ভাবে শারিরিক নির্যাতন করে।

শ্বাসরোধ করে মারার চেষ্টা করলে রিয়াজ অজ্ঞান হয়ে যায়। এতে তারা বুঝতে পারে রিয়াজ মারা গেছে, তাই রিয়াজকে একটি প্লাস্টিকের বস্তার ভিতরে ভরে নিসাবদী এলাকার একটি দোকানের সামনে ফেলে রেখে যায়। পরের দিন রবিবার ভোরে ফজরের নামাজ পরতে আসা ইমাম গোলাম মাওলা দোকানের কাছে একটি বস্তা দেখতে পেয়ে সন্দেহ হলে মসজিদে থাকা আরো লোকজন নিয়ে বস্তা খুলে দেখে মানুষ।

এখনো জীবিত আছে বুঝতে পেরে বস্তা খুলে রিয়াজকে বের করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়। রিয়াজ মাদারীপুর সদর উপজেলার কুনিয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের নিসাবদী এলাকার মো. হোসেন খানের ছেলে। এবং এই ব্যাপারে সদর থানায় গত ৭/৯/১৮ইং তারিখ একটি মামালা করা হয়েছে। মামলা নং-১৫।

Sharing is.

Share on facebook
Share with others
Share on google
Share On Google+
Share on twitter
Share On Twitter
  • You May Also Like:
  • Top Views