পাকিস্তানকে গুঁড়িয়ে ভারতের সহজ জয়!

স্পোর্টস আপডেট ডেস্কঃ ম্যাচের গোড়া থেকেই ব্যাটিং বিপর্যয়ের সামনে পাকিস্তান। ১৬২ রানে শেষ হয়ে যায় পাকিস্তানের ইনিংস। পুরো ৫০ ওভারও খেলতে পা্রে নি সরফরাজ আহমেদের দল। ৪৩.১ ওভারে দাঁড়ি পড়ল ইনিংসে। জয়ের রান তুলতে এলে ধরে খেলার নীতি নেন ভারতের দুই ওপেনার রোহিত শর্মা এবং শিখর ধওয়ন। সিঙ্গলস নিয়ে স্কোরবোর্ড সচল রাখা ছাড়াও মাঝে মধ্যে চার-ছয়ও বার হল রোহিত-শিখরের ব্যাট থেকে। তবে ৮৬ রান করার পর ভারতের প্রথম উইকেট পড়ে যায়। অর্ধশতরান করে শাদাব খানের বলে বোল্ড হয়ে ফিরে যান রোহিত। এর পর ৪৬ রানে ফিরে যান শিখরও। তবে অম্বাতি রায়ডু এবং দীনেশ কার্তিকের ব্যাটে ভর করে সহজেই জয়ী হল ভারত।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে তিন রানে পাকিস্তানের পড়ে গিয়েছিল দুই উইকেট। মাঝখানে তৃতীয় উইকেটে বাবর আজম ও শোয়েব মালিক ৮২ রান যোগ করেছিলেন। কিন্তু, আজম (৪৭) ফিরতেই ভাঙন ধরল ইনিংসে। ৭৭ রানের মধ্যে পড়ল শেষ আট উইকেট। বাবর ছাড়া রান পেলেন শুধু শোয়েব মালিক (৪৩)। ভারতের সফল বোলার হলেন ভুবনেশ্বর কুমার (৩-১৫) ও কেদার যাদব (৩-২৩)।

পরিসংখ্যান বলছে, এশিয়া কাপে সফলতম দল ভারতই। মোট ছয় বার এই প্রতিযোগিতা জিতেছে ভারত। পাকিস্তান অন্য দিকে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মাত্র দু’বার। এশিয়া কাপে ভারত ও পাকিস্তান মোট ১২ বার মুখোমুখি হয়েছে। ভারত জিতেছে ছ’বার। হেরেছে পাঁচ বার। একবার ম্যাচের নিষ্পত্তি হয়নি। এশিয়া কাপে শেষ সাক্ষাতেও জিতেছে ভারত। ২০১৬ সালে ভারত পাঁচ উইকেটে হারিয়েছিল পাকিস্তানকে।

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালের পর পাকিস্তান খেলেছে মাত্র ১৫ ওয়ানডে। তাতে জিতেছে ১০টিতে। হার পাঁচটিতে। ভারত এই সময়ে খেলেছে ৩১ ওয়ানডে। জয় ২৩টিতে। হার আটটিতে। তবে ভারত এশিয়া কাপে বিশ্রাম দিয়েছে অধিনায়ক বিরাট কোহালিকে। দলের পয়লা নম্বর ব্যাটসম্যান না থাকা অবশ্যই ব্যাটিং অর্ডারের কাছে চাপ। আবার এটা বাকিদের কাছে নিজেকে চেনানোর সুযোগও।

 

 

 

Sharing is.

Share on facebook
Share with others
Share on google
Share On Google+
Share on twitter
Share On Twitter
  • You May Also Like:
  • Top Views