বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বাড়িতে ঢুকে পাত্রীকে কোপাল যুবক!

আবুল হোসেন,সিলেট প্রতিনিধি :: সিলেটে বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় শিমলা নামের মেয়েকে প্রাণে মারার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে এক যুবকের বিরুদ্ধে। বাড়িতে শিমলা আক্তারকে একা পেয়ে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে তার মুখে আঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা শিমলাকে উদ্ধার করে সিলেট এম এ জি ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার এ ঘটনাটি ঘটে।

আহত শিমলা আক্তার (১৫)। সে সিলেট নগরীর লোহার পাড়াস্থ সেলিম মিয়ার কলোনীর ভাড়াটিয়া সরাজ নুর এর মেয়ে।

জানা যায়, সোমবার রাত ১০টার দিকে শামীম নামে (২৫) তাহার মামাতো ভাই দুলাল আহমদ (৫০) বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে শিমলাদের বাড়িতে যায়। মেয়ে বাবা ও মা বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায়, মঙ্গলবার দুপুর ১টায় সময় শামীম মেয়েটি বাসায় গিয়ে-ঘরের ভিতরে প্রবেশ করে শিমলাকে একা পেয়ে দেশীয়অস্ত্র দিয়ে তার মুখে আঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে মেয়েটিকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে সিলেট এম এ জি ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

শিমলার বাবা সরাজ নুর জানান, সকালে রাজমিস্ত্রী কাজের জন্য বাসায় থেকে বেড়িয়ে আসি। আমার স্ত্রী একটি বাসায় বোয়ার কাজ করেন। শামীম নামের ছেলেটি আমাদের বাসায় গিয়ে আমার মেয়েকে একা পেয়ে এ ঘটনা ঘাটয়ে পালিয়ে যায়। আমার মেয়ে বিয়ের বয়স হয় নাই বিদায় আমরা বিয়ের প্রস্তাব না করি। শামীম রিক্সা চালক বলে জানি।

তার বাড়ী কোথায় তাও জানি না। এ ব্যাপারে মেয়ের বাবা বাদী হয়ে মামলা করেছেন। শিমলা ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসা রয়েছে।