শিক্ষার্থীদের প্রশ্ন; ইবি প্রাইভেট না পাবলিক?

ইবি প্রতিনিধি :: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন খাতে বর্ধিত ফি বাতিলের দাবিতে মিছিল ও মানববন্ধন করেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। মানববন্ধনে আগামী ২৩ অক্টোবরের মধ্যে দাবি না মানা হলে ২৪ অক্টোবর থেকে ক্যাম্পাস অবরোধের হুমকি দিয়েছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী মঙ্গলবার বেলা বারোটার দিকে প্রশাসন ভবনের সামনে থেকে প্রায় দুই শতাধিক শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে মিছিল শুরু করে। মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদ ভবন প্রদক্ষিণ করে আবার প্রশাসন ভবনের সামনে এসে মানববন্ধনে মিলিত হয়।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘গত বছরের তুলনায় ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের ভর্তির আবেদনের ফি তিনগুন বাড়ানো হয়েছে। এছাড়াও ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষ থেকে সেশন চার্জ, হল চার্জ, সেমিস্টার পরীক্ষায় ফি বৃদ্ধি এবং পরিবহন খাতে ফি বৃদ্ধিসহ নামে বেনামে খাত তৈরি করে ফি আদায় করেছে প্রশাসন। যার ফলে দরিদ্র ও মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তানদের বিশ্ববিদ্যালয়ের ফি দিয়ে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে।’

আন্দোলনকারীরা আরো জানান, ‘এবছর ভর্তির আবেদনের মুল্য তিনগুন বৃদ্ধি করার কারণে অনেক শিক্ষার্থী ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে। যার ফলে গত বছরের তুলনায় এবার অর্ধেক শিক্ষার্থীর আবেদন জমা পড়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের এই অযাচিত ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে আমরা প্রতিবাদে নামতে বাধ্য হয়েছি।’

এদিকে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সাথে দ্বিতীয় দিনের মতো আজও একাত্বতা ঘোষনা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ।

ফি বৃদ্ধির বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. রাশিদ আসকারী বলেন, ‘এটা তো গত বছরের ইস্যু, এবার তো কোনো ফি বাড়ানো হয়নি। তাছাড়া গত বছর যতটুকু বাড়ানো হয়েছে সেটা শিক্ষার্থীদের বিষয়টি মাথায় রেখেই বাড়ানো হয়েছে। হঠাৎ করে পূর্বের ইস্যু নিয়ে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনটা সম্পূর্ণ অযৌক্তিক। আশা করি শিক্ষার্থীদের শুভ বুদ্ধির উদয় হবে।’

Sharing is.

Share on facebook
Share with others
Share on google
Share On Google+
Share on twitter
Share On Twitter
  • You May Also Like:
  • Top Views