ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে সাতক্ষীরায় ‘ঝাড়ু মিছিল’ !

১২:০৮ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, অক্টোবর ২৬, ২০১৮ খুলনা

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: সিনিয়র নারী সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টি ও বাংলাদেশের সকল নারী সমাজের প্রকাশ্যে চরিত্র হননকারী ১/১১ সরকারের কুশীলব, বহুরূপী ষড়যন্ত্রের হোতা ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে সাতক্ষীরায় ঝাড়ু মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সাতক্ষীরা জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে বৃহস্পতিবার সকালে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদিকা জ্যোৎস্না আরা’র সার্বিক ব্যবস্থাপনায় শহরের রেড ক্রিসেন্ট কার্যালয়ের সামনে থেকে ব্যানার ও প্লাকার্ডসহ একটি ঝাড়ু মিছিল বের হয়। মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সাতক্ষীরা নিউ মার্কেট (শহীদ আলাউদ্দিন চত্বর) এ গিয়ে প্রতিবাদ সমাবেশে রুপ নেয়।

সাতক্ষীরা জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট ফরিদা আক্তার বানু’র সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক শেখ হারুন উর রশিদ, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদিকা জ্যোৎস্না আরা প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, গণমাধ্যমে সারা বিশ্বকে জানান দিয়ে অকথ্য ভাষায় মাসুদা ভাট্টিকে অপমান করেছেন ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেন। তিনি এই অবমাননার মধ্যে দিয়ে সমগ্র বাংলাদেশের নারী সমাজকে অপমান করেছেন। বাংলার নারী সমাজ এখন সংঘবদ্ধ। নারী সমাজকে এখন আর দাবায়ে রাখতে পারবেনা। বক্তারা আরো বলেন, এই মঈনুল হোসেন ওয়ান ইলেভেনের সময় ক্ষমতার লোভে মাইনাস টু ফর্মুলা বাস্তবায়ন করতে গিয়ে বলেছিলেন, আমরা চুনপুটি ধরি না, রুই কাতলা ধরি। সেই রুই কাতলা নিয়ে খেলা করতে গিয়ে চক্রান্ত করে দুই বছর ক্ষমতা দখল করে দেশের মানুষকে জিম্মি করে রেখেছিলেন। এই মঈনুল হোসেন নিজের ভাইকে শায়েস্তা করার জন্য ইত্তেফাক অফিসে মানুষ হত্যা করেছেন। সেই হত্যা মামলাকে গায়েব করে দিয়েছিলেন।

বক্তারা এ সময় তার সর্বোচ্চ শাস্তির দাবী জানান। সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক শেখ হারুন উর রশিদ।