নোবিপ্রবিতে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের এ ও বি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

৯:৪৩ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, অক্টোবর ২৬, ২০১৮ চট্টগ্রাম

ওহী আলম, নোবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ উৎসবমুখর পরিবেশে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ‘এ’ ও ‘বি’ গ্রুপের ভর্তি পরীক্ষা আজ শুক্রবার (২৬ অক্টোবর ) সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে।  নোবিপ্রবি ক্যাম্পাস এবং ক্যাম্পাসের বাইরে মোট ২৯টি কেন্দ্রে একযোগে সকাল ১০.৩০ থেকে ১২.০০ টা এবং বিকেল ৩.০০ থেকে ৪.৩০ টা পর্যন্ত এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

এবারের  ‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষায় ৩০৫ আসনের বিপরীতে ২৩ হাজার ৯৩২ জন পরীক্ষার্থী আবেদন করে। প্রতি আসনের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে ৭৮ জন। আর বিজ্ঞান অনুষদেও ‘বি’ গ্রুপের অধীন ৩০৫ আসনের বিপরীতে আবেদন করে মোট ২০ হাজার ৯৯৬ জন পরীক্ষার্থী। এতে প্রতি আসনের জন্য লড়াই করে ৬৯ জন। আজকের অনুষ্ঠিতব্য উভয় গ্রুপের পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর উপস্থিতি ছিলো শতকরা ৮০ ভাগ।

সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এম অহিদুজ্জামান বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের কেন্দ্রসমূহ পরিদর্শন করেন। পরে তিনি নোয়াখালী সরকারি মহিলা কলেজ পরিদর্শনে যান। এসময় নোবিপ্রবি সাংবাদিক সমিতির প্রতিনিধি দলও বিভিন্ন কেন্দ্রে সংবাদ সংগ্রহের জন্য উপস্থিত ছিল।

নোবিপ্রবি’র উপাচার্য সাংবাদিকদের বলেন, নোবিপ্রবি পরিবারের ছাত্র-শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অক্লান্ত পরিশ্রমের পাশাপাশি স্থানীয় প্রশাসনসহ সর্বস্তরের নোয়াখালীবাসীর সহায়তায় অত্যন্ত সুষ্ঠুভাবে এ ভর্তি কর্মযজ্ঞ চলছে। রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় পুলিশ ও গোয়েন্দা প্রশাসন, জেলা প্রশাসন, নোয়াখালী পৌরসভা, ছাত্রনেতৃবৃন্দ, সাংবাদিকসহ সকল শ্রেণি পেশার মানুষ পরীক্ষা কার্যক্রমকে এগিয়ে নিতে সহায়তা করছে। সব মহলের এমন অকৃত্রিম আন্তরিকতার জন্য নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের  উপাচার্য প্রফেসর ড. এম অহিদুজ্জামান তাদের প্রতি কৃতজ্ঞাতা প্রকাশ করেন ও ধন্যবাদ জানান।

ভর্তি পরীক্ষা উপলক্ষে প্রতিটি কেন্দ্রে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে পরীক্ষার্থীদের সার্বিক সহযোগিতার জন্যে সেচ্ছাসেবক নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এতে কাজ করছে বিএনসিসি এবং রোভার স্কাউটের বিশ্ববিদ্যালয় শাখা, সেচ্ছাসেবী সংগঠন ও ছাত্রসংগঠনসমূহ।

এদিকে পরীক্ষা উপলক্ষে ক্যাম্পাসের সর্বত্র উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করে। পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে অভিভাবকরাও এসেছেন। ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে বিভিন্ন ধরনের ব্যানার-ফেস্টুন দিয়ে ক্যাম্পাসের প্রতিটি জায়গাকে সাজানো হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন জেলাভিত্তিক ছাত্রফোরামগুলো  বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের কাছে তথ্য কেন্দ্রে খুলে শিক্ষার্থীদের সহায়তা করে। ভর্তিচ্ছুদের সহায়তার জন্য পরীক্ষার হলগুলোর সামনেও তথ্য কেন্দ্র স্থাপন করেছে তারা।