বাংলাদেশের এক রেকর্ডে থামল আরেক রেকর্ড, এক ওভারে ৪৩ রান!

স্পোর্টস্ আপডেট ডেস্ক :: বাংলাদেশের জার্সি গায়ে কখনো খেলা হয়নি আলাউদ্দিন বাবুর। ২৬ বছর বয়সী রংপুরের এই অলরাউন্ডার এর পরও ছিলেন রেকর্ডের খাতায়। ‘লিস্ট এ’ ম্যাচে এক ওভারে সবচেয়ে বেশি ৩৯ রান দিয়েছিলেন তিনি। ২০১৩ সালে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আবাহনীর হয়ে খেলা আলাউদ্দিনের ৭ বলের (একটা নো ছিল) ওভারে ৩৯ নিয়েছিলেন শেখ জামালের হয়ে খেলা জিম্বাবুয়ের এলটন চিগুম্বুরা। গতকাল হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছেন বাংলাদেশি অলরাউন্ডার। নিউজিল্যান্ডের ঘরোয়া ক্রিকেটে নর্দার্ন ডিস্ট্রিক্টের বিপক্ষে যেন এক ওভারে ৪৩ রান দিয়ে ফেলেছেন সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্টের বোলার উইলেম লুডিক। হ্যামিল্টনে হওয়া ফোর্ড ট্রফির ম্যাচটিতে কীর্তিটা দুজন মিলে করেন—জো কার্টার আর ব্রেট হ্যাম্পটন।

দক্ষিণ আফ্রিকায় জন্ম নেওয়া ফাস্ট বোলার লুডিকের সেই ওভারটি থেকে রান এসেছে এভাবে ৪, ৬ নো, ৬ নো, ৬, ১, ৬, ৬, ৬। প্রথম বলটা ছিল ওয়াইড ইয়র্কার। ব্যাটের কানায় লেগে বোল্ড হতে পারতেন ব্রেট হ্যাম্পটন। কিন্তু বল স্টাম্প ঘেঁষে বেরিয়ে চলে যায় সীমানার বাইরে। পরের কোমর উচ্চতার দুটো বলেই ছক্কা হ্যাম্পটনের। টানা দুটি বিমার করার দায়ে আর বোলিংই করতে পারার কথা নয় লুডিকের। কিন্তু ফোর্ড ট্রফির বাইলজে ছাড় দেওয়া আছে। এমন কিছু হলে পরিস্থিতি বিবেচনা করার ভার দেওয়া ছিল আম্পায়ারের ওপর। মাঠের দুই আম্পায়ার বোলিংয়ে বাধা দেননি তাঁকে। হ্যাম্পটন বৈধ দ্বিতীয় বলটিতে ছক্কা আর তৃতীয় বলে সিঙ্গেলস নিয়ে বদল করেন প্রান্ত।

এরপর তাণ্ডব জো কার্টারের। তিন বলে টানা তিন ছক্কা তাঁর! ‘লিস্ট এ’-তে এক ওভারে সবচেয়ে বেশি ৪৩ রানের রেকর্ডটা হয় তাতেই। সেই ওভারটি করার আগে উইলে লুডিকের বোলিং ফিগার ৯-০-৪২-১। ওভারটির পর সেটা ১০-০-৮৫-১! নর্দার্ন ডিস্ট্রিক্ট গড়ে ৭ উইকেটে ৩১৩ রানের বড় স্কোর। কার্টার ৬৬ বলে খেলেন ১০২ রানের বিধ্বংসী ইনিংস। সেঞ্চুরি না পেলেও হ্যাম্পটনের ব্যাট থেকে আসে ৬৬ বলে ৯৫। জবাবে ২৫ রানের জয় পায় নর্দার্ন ডিস্ট্রিক্ট। সেঞ্চুরিয়ার কার্টার ম্যাচ শেষে জানাচ্ছিলেন, ‘ম্যাচটি বদলে দিয়েছে ৪৩ রানের ওভারটি। আমরা দুজন একটা পর্যায়ে ভুলে গিয়েছিলাম আসলে রান হয়েছে কত!’ নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড