‘কৌশলগত কারণেই একাদশে পেসারদের জায়গা হয়নি’

স্পোর্টস্ আপডেট ডেস্ক :: হোম কন্ডিশনের সুবিধা নিতেই ঢাকা টেস্টে একাদশে রাখা হয়নি পেইসার। এ নিয়ে থিংক ট্যাংককে দোষ দিচ্ছেন না কোর্টনি ওয়ালশ। বরং গেল দুই বছরের দায়িত্বে সবচেয়ে বড় জয়ে সাকিব-মিরাজদের প্রশংসা করেছেন পেইস বোলিং কোচ। ওডিআই সিরিজেও উইন্ডিজকে হারাতে চান ওয়ালশ। নিজের ডিপার্টমেন্ট থেকেও ভালো কিছুর আশা তার।

উইন্ডিজ বধে সেরা অস্ত্রই ব্যবহার করেছিলো টাইগার ম্যানেজমেন্ট। একাদশে চার স্পিনারের অন্তর্ভুক্তি নিয়ে সমালোচনা থাকলেও পৌনে তিন দিনে ম্যাচ জিতেছে বাংলাদেশ। তাই ডাগ আউটে অলস সময় কাটানো ছাড়া কিছুই করার ছিলো না পেইস কিংবদন্তির।

এক মাসের ব্যবধানে তিন ভেন্যুতে চার টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ। কন্ডিশন বিবেচনায় জিম্বাবুয়ে ও উইন্ডিজের বিপক্ষে মুস্তাফিজ-খালিদদের কাজে লাগানোর সুযোগ ছিল কম। পেইস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশও নির্ভার থাকতে পেরেছেন।

বোলিং কোচ বলেন,”কৌশলগত কারণেই একাদশে পেইসারদের জায়গা হয়নি। এ ধরণের কন্ডিশনে স্পিনাররাই ভালো করে। আমার কাছে এটি সম্ভবত সেরা টেস্ট ম্যাচ। কারণ কোন পেইসার ছাড়াই জয়।”

ফরম্যাট বদলে দলের কৌশলও ভিন্ন হবে। পেইস আক্রমণ ভারি করে ওডিআই দল দিয়েছেন নির্বাচকেরা, ১৬ সদস্যের দলে পাঁচজন পেইসার। সাদা বলে মাশরাফী-মুস্তাফিজদের কাছে সেরাটাই চান বোলিং কোচ।

ওয়ালশ আরো বলেন, ওডিআই সিরিজে উইকেট ভিন্ন থাকবে। তখন পিচ কন্ডিশন দেখে সেরা একাদশ বেছে নেয়া হবে। টেস্ট সিরিজে এক রকম বসেই ছিলো পেইসাররা। আশা করছি ওডিআই সিরিজে পারফর্মের জন্য বোলাররা মুখিয়ে আছে।”

উইন্ডিজ মিশন শেষে ফেব্রুয়ারিতে নিউজিল্যান্ড যাবে বাংলাদেশ। তার আগে পেইস ডিপার্টমেন্টকে পেইস বান্ধব উইকেটে প্রস্তুত করতে চান ওয়ালশ।