নিজের ব্যালন ডি’অর জেতাকে ‘ফুটবলের বিজয়’ হিসেবে দেখছেন মদ্রিচ!

স্পোর্টস্ আপডেট ডেস্ক ::  সোমবার (০৩ ডিসেম্বর) প্যারিসের স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় এক জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানে বর্ষসেরা ফুটবলার হিসেবে মদ্রিচের নাম ঘোষণা করা হয়। বিশ্বসেরার সেরা তিনের তালিকায় সবাইকে অবাক করে দিয়ে আগেই বাদ পড়েন আর্জেন্টাইন তারকা ফুটবলার লিওনেল মেসি। আর পুরস্কার জয়ের পথে মদ্রিচ পেছনে ফেলেন রোনালদো ও অঁতোয়ান গ্রিজমানকে। বিশ্বজুড়ে ক্রীড়া সাংবাদিকদের ভোটে ফরাসি সাময়িকী ‘ফ্রান্স ফুটবল’ এর দেওয়া পুরস্কারটি জয় করে নেন মদ্রিচ।

লিওনেল মেসি ও ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর আধিপত্য ভেঙে ব্যালন ডি’অর জেতাকে ‘ফুটবলের বিজয়’ হিসেবে দেখছেন লুকা মদ্রিচ। গত এক দশকে যারা যোগ্য হয়েও এই স্বীকৃতি পাননি, এবারের ব্যালন ডি’অর তাদের জন্য বলেও জানিয়েছেন ক্রোয়েশিয়ার এই মিডফিল্ডার।

গত অগাস্টে রোনালদো ও মোহামেদ সালাহকে হারিয়ে উয়েফার বর্ষসেরা ফুটবলার নির্বাচিত হন ৩৩ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডার। পরের মাসে এই দুজনকে পেছনে ফেলেই ‘দ্য বেস্ট ফিফা মেনস প্লেয়ার’ নির্বাচিত হন তিনি।

তালিকায় পঞ্চমস্থানে থাকা মেসিকে তো ফুরফুরে মেজাজে পরিবারের সঙ্গে পাওয়া যায়। বার্সেলোনা অধিনায়ক ইন্সটাগ্রামে একটি ছবি পোস্ট করেন। যেখানে দেখা যায়, তিনি তার দুই ছেলে থিয়াগো ও মাতেওকে নিয়ে আনন্দে সময় কাটাচ্ছেন।

মদ্রিচের কাছে বিশাল ব্যবধানে হেরে যাওয়া রোনালদোর অবশ্য কোনো পতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। তবে তার দুই বোন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কটুকথায় ধুয়ে দিয়েছেন।

এলমা অ্যাভেইরো লিখেন, ‘আমরা এমন এক বিশ্বে বসবাস করছি যা পচা, নষ্ট। সঙ্গে মাফিয়া ও অর্থের খেলা।’ রোনালদোর আরেক বোন কাতিয়া সিআর সেভেনের পূর্বের ব্যালন ডি’অর জয়ের একটি ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়…যে ফুটবলটাও বোঝে।’

এদিকে অনুষ্ঠানে আসেননি এই প্রজন্মের আরেক তারকা নেইমারও।