ভাইরাল হওয়া ছবি নিয়ে যা বললেন জন কবির ও মিথিলা

বিনোদন ডেস্ক- ব্যান্ডসংগীতের শিল্পী জন কবির ও অভিনয়শিল্পী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা দীর্ঘদিনের বন্ধু। একসঙ্গে অনেক নাটক ও টেলিছবিতে অভিনয় করছেন। এ পর্যন্ত দুজনের বহু ছবি প্রকাশিত হয়েছে ফেসবুক ও গণমাধ্যমে। সেসব ব্যবহার করে ব্যঙ্গ-বিদ্রূপাত্মক স্টিকার, মেমে তৈরি হয়েছে।

কিন্তু গতকাল সোমবার ‘কনটেন্ট’ ক্যাপশন দিয়ে ফেসবুকে দেয়া ছবিটি যেন উসকে দিয়েছে একদল বিপথগামী অন্তর্জালবাসীকে। জন কবিরের অ্যাকাউন্ট থেকে তিন হাজারের বেশি শেয়ার হয়েছে ছবিটি। মন্তব্য করা হয়েছে এক হাজার তিন শতাধিক।

জন কবির ও মিথিলার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে বিনোদন জগত থেকে শুরু সব জায়গায় চলছে আলোচনা। প্রবীণ অভিনেতা থেকে শুরু করে তাদের ফ্যানরাও নানা মন্তব্য করছেন ওই ছবিকে ঘিরে।

এদিকে নিজেদের ভাইরাল হওয়া ছবি নিয়ে ক্ষুব্ধ মিথিলা। ফেসবুকে নিজেদের ছবিতে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যকে ‘সাইবার বুলিং’ বলে মনে করেন মিথিলা

ভাইরাল হওয়া ছবি নিয়ে আজ মঙ্গলবার দুপুরে মিথিলা এক জাতীয় দৈনিককে এ কথা বলেন।

এসময় তিনি বলেন, ‘নাটক, ইন্টারভিউ, বিজ্ঞাপনের কারণে একসঙ্গে আমাদের বহু ছবি আছে। আমি বুঝতে পারছি না, এ ছবিতে বিশেষ কী আছে? নিম্ন রুচির বিকারগ্রস্ত কতগুলো লোকের কিছু মন্তব্যে আমি খুবই হতাশ হয়েছি। এটা সাইবার বুলিং, এটা অপরাধ।’

মিথিলা জানান, তাঁর উপস্থাপনায় বাংলাভিশনে ‘আমার আমি’ অনুষ্ঠানের একটি পর্বের শুটিংয়ে এসেছিলেন শিল্পী জন কবির ও তানযীর তুহিন। সেই সেটেই ছবিটি তুলেছিলেন জন-মিথিলা।

তিনি বলেন, ‘সেটে তো আমি সব সময়ই অতিথিদের সঙ্গে ছবি তুলি। এই ছবিও রসিকতাচ্ছলে তুলে আপলোড করা হয়। মানুষ যে এতে অতি প্রতিক্রিয়া দেখাবে, সেটা বুঝিনি।’

মিথিলা বলেন, ‘মানুষ আমাদের নিয়ে আগেও ট্রল করেছে। সেটা নিয়ে ওই অনুষ্ঠানে আমরা কথা বলেছি, হাসাহাসি করেছি। তারই সূত্র ধরে জন ওই সেলফিটা তুলেছিল এবং মজা করার জন্যই আপলোড করেছিল। বিষয়টি যে হিতে বিপরীত হবে, বুঝতে পারিনি। মানুষ প্রমাণ করে দিয়েছে যে তারা কতটা কুরুচির অধিকারী।’

নিজেদের সেলফিতে নেতিবাচক মন্তব্য দেখে জন কবিরের প্রতিক্রিয়া কী? তিনি বলেছেন, ‘আমার কিচ্ছু যায়–আসে না। কারণ, আমরা এমন একটা জায়গায় পৌঁছে গেছি যে চিন্তাভাবনা ছাড়াই যেকেউ যে–কারও ব্যাপারে কিছু একটা বলে দিতে পারি।’

বন্ধুর সঙ্গে ফেসবুকে ছবি প্রকাশ প্রসঙ্গে জন বলেন, ‘আপনি একজন ছেলেবন্ধুর সঙ্গে ফেসবুকে ছবি দেন, আর একজন মেয়েবন্ধুর সঙ্গে ছবি দেন। দেখুন মানুষ কোন ছবিতে মানুষ কী ধরনের মন্তব্য করে!’

Sharing is.

Share on facebook
Share with others
Share on google
Share On Google+
Share on twitter
Share On Twitter

You May Also Like:

  • Recent Updates
  • Top Views