বিয়ের পরেই প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে প্রেম নিয়ে মুখ খুলল শাহরুখ

বিনোদন ডেস্ক :: আমেরিকান সংগীতশিল্পী নিক জোনাসের সঙ্গে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সেরেছেন বলিউডের তুমুল জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। গেল গ্রীষ্মে নিক জোনাস যখন প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে প্রেম নিবেদন করেন, তখনই তারা বুঝে গিয়েছিলেন, ধর্ম, সংস্কার আর পরিবার মিলে-মিশে একাকার হয়ে যাবে তাদের।

কিন্তু এ বিয়ের পর কয়েকদিন অতিবাহিত না হতেই প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার সাথে বলিউড বাদশার প্রেমের বিতর্ক নিয়ে সরাসরি কথা বললেন শাহরুখ খান। তিনি জানান, সে সময়ে ওই গুঞ্জনটা বন্ধুত্বের সুন্দর সম্পর্কটাও নষ্ট করে দিচ্ছিলো। যার ফলে ‘গুজবে অ্যাফেয়ার’ এর কিছুদিন পরেই প্রিয়াঙ্কা ও তার মধ্যে একটা দূরত্ব তৈরি হয়। আর সেটা করেছিলেন শাহরুখ নিজেই।

শাহরুখ আরও জানান, হ্যাঁ, প্রিয়াঙ্কার সাথে আমার সম্পর্ক ছিলো। কিন্তু সেটা খুব জোরালো বন্ধুত্বের। শুটিং করতে করতে আমরা বেশ কিছু সুন্দর মুহূর্ত একসঙ্গে কাটিয়েছি। প্রিয়াঙ্কা আমার খুব কাছের বন্ধু আর সারাজীবনই তাই থাকবে।

শাহরুখ খান ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে এমনিতেই একসঙ্গে খুব বেশী কাজ করতে দেখা যায়নি। এই জুটিকে সর্বশেষ ‘ডন-২’-এ কাজ করতে দেখা গেছে। তাও সেই ২০১১ সালে।

প্রসঙ্গত, রাজস্থানের যোধপুরের উমেদ ভবন প্যালেসে ১ ডিসেম্বর খ্রিষ্টান রীতিতে ও ২ ডিসেম্বর হিন্দুমতে রাজকীয় বিয়ে করেছেন বলিউড ও হলিউড তারকা প্রিয়াঙ্কা চোপড়া আর মার্কিন পপ তারকা নিক জোনাস। এরপর দিল্লিতে তাজ প্যালেস হোটেলে মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় হয়ে গেল তাদের প্রথম রিসেপশন অনুষ্ঠান। এই নব দম্পতিকে শুভেচ্ছা জানাতে সেখানে এসেছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

নবদম্পতিকে উপহার হিসেবে দিয়েছেন দুটি লাল গোলাপ। তিনি নবদম্পতির সঙ্গে কিছু সময় কাটিয়েছেন। প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার মা মধু চোপড়া এবং নিক জোনাসের বাবা পল কেভিন জোনাস আর মা ডেনিস মিলার জোনাসের সঙ্গেও তিনি শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

দিল্লিতে সংবাদ সংস্থা আইএএনএসকে বিয়ে নিয়ে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া বলেন, ‘সুখের যদি ১ থেকে ১০ মানের কোনো স্কেল হয়, তাহলে আমি এখন আছি বারোতে!’

আর নিক জোনাস বলেন, ‘আমি ভারতীয় বিয়ের একজন ফ্যান!’ বিয়ের নানা উৎসব নিয়ে প্রিয়াঙ্কা বললেন, ‘সবকিছুই ছিল খুব আনন্দের। এখানে ক্লান্তির কোনো জায়গা নেই। প্রতিটি মুহূর্ত আমরা উপভোগ করেছি।’ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ও নিক জোনাসের বিয়ের ছবি প্রথম প্রকাশ করেছে পিপল ম্যাগাজিন।