কোন অপরাধ নেই! উল্টো শখ করে টাকা দিয়ে কারাগারে এই দেশের মানুষ!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: দক্ষিণ কোরিয়ার মানুষের সুযোগ-সুবিধার শেষ নেই। কিন্তু তাদের অনেকেরই মনে শান্তি নেই। শিল্পোন্নত দেশ হিসেবে বেশ সুনাম থাকলেও দেশটির অধিকাংশ মানুষ হতাশায় ভোগে। আর সেই হতাশ জীবনে একটু ভিন্ন কিছুর তাগিদেই বহু কোরিয়ান রীতিমতো টাকা খরচ করে কারাগারে থাকছেন।

প্রচলিত রীতি অনুযায়ী অপরাধ করলে মানুষ জেলে যায়। আর দক্ষিণ কোরিয়ানরা সেই রীতিই যেন পাল্টে দিচ্ছে। রীতিমতো অর্থের বিনিময়ে জেলে যাওয়ার সুযোগ তৈরি করছেন তারা।

মূলত মানসিক চাপ, বাড়তি কাজ আর পড়ালেখার চাপে কোরিয়ানদের জীবন শৃঙ্খলিত হয়ে পড়েছে। আর তা থেকে মুক্তি পেতে দেশটির অনেকেই জেলে যাচ্ছেন। তবে কারাগার বলা হলেও বাস্তবে তারা যে জেলখানায় থাকছেন তা সত্যিকার কারাগার নয়। দক্ষিণ কোরিয়ায় রয়েছে একটি নকল কারাগার, যার নাম ‘প্রিজন স্টে’। এ কারাগারের প্রায় সব ব্যবস্থা অনেকটা সত্যিকার কারাগারের মতো। আর সেখানেই এখন পর্যন্ত দুই হাজারের বেশি ‘বন্দি’ জেল খেটেছেন। এজন্য তাদের খরচও করতে হয়েছে মোটা অংকের অর্থ।

জেলখানাটির নিয়মকানুন যথেষ্ট কড়া। জেলের কয়েদিদের মতোই নিয়ম করে প্রকোষ্টের ভেতর বন্দি অবস্থায় থাকতে হয় সবাইকে। রাখা যায় না মোবাইল ফোনও। তবে অনেকেই এ কারাগারে কিছুদিন থেকে উপকৃত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন।