‘নির্বাচনের আগে পোশাক শ্রমিক উসকানি দেয়ার চেষ্টা চলছে’

সময়ের কণ্ঠস্বর :: নির্বাচন ব্যাহত করতে একটি মহল পোশাক শ্রমিক অসন্তোষ সৃষ্টির চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেছেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী মজিবুল হক চুন্নু। এ ধরনের চক্রান্ত কঠোর হাতে দমনের হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি শ্রমিকদের বকেয়া বেতন দ্রুত পরিশোধের আহ্বান জানিয়েছে কারখানা মালিকদের সংগঠনের নেতারা।

ফতুল্লা ভোলাইল এলাকার এনআর গ্রুপের শ্রমিকরা মজুরি বাড়ানোর দাবিতে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে আহত হন কমপক্ষে ৭০ জন। দুপুরে মালিকের পক্ষের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেয় শ্রমিকেরা। এর আগে, একই দাবিতে গত সোমবার ফতুল্লার বিসিক শিল্প নগরীতে হয়েছে পোশাক শ্রমিকদের বিক্ষোভ-সংঘর্ষ।

এ ধরনের পরিস্থিতি নিয়ে সকালে সচিবালয়ে জরুরি বৈঠক করে শ্রম মন্ত্রণালয়ের ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্টের কোর কমিটি। শ্রম প্রতিমন্ত্রী ছাড়াও বৈঠকে অংশ নেন তৈরি পোশাক শিল্প মালিকদের সংগঠনের নেতা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। শ্রমিক অসন্তোষ ঠেকাতে কারখানা মালিকদের দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানানো হয়ে বৈঠক শেষে।

শ্রম প্রতিমন্ত্রী মজিবুল হক চুন্নু বলেন, কিছু কারখানার মালিক নির্বাচন বাধাগ্রস্ত করতে তৈরি পোশাক শিল্পসহ বিভিন্ন খাতে শ্রমিক অসন্তোষ তৈরির চেষ্টা করছেন।

বেতন ইস্যুতে নৈরাজ্য সৃষ্টি করা হলে শ্রমিকের পাশাপাশি মালিকও আইনের আওতায় আসবেন বলে হুঁশিয়ারি দেন বিজেএমইএর সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান।