মান্দায় মা মেয়ের রহস্যজনক মৃত্যু, আটক ৩

এম এম হারুন আল রশীদ হীরা, মান্দা(নওগাঁ): নওগাঁর মান্দায় ঐতিহাসিক কুশুম্বা মসজিদে মানত দেয়ার পথে মা ও মেয়ের রহস্যজনক মৃত্যু ঘটেছে। গতকাল শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার কাঞ্চন বাজারে এ ঘটনাটি ঘটে। নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। হলেন, নওগাঁ সদর উপজেলার বজরুক আতিথা গ্রামের এবাদত হোসেনের স্ত্রী ফরিদা বিবি (৫৫) ও তার স্বামী পরিত্যক্তা মেয়ে শাহনাজ পারভীন (২৫)।

ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে থানা পুলিশ। আটককৃতরা হলেন, মান্দা উপজেলার কাঞ্চন গ্রামের আবদুল করিমের ছেলে মমতাজ হোসেন (৫০) এবং তার স্ত্রী লতিফা বিবি (৪৫), নওগাঁর বদলগাছি উপজেলার বালুভরা ইউনিয়নের দোনইল গ্রামের মৃত খয়বর রহমান সরকারের ছেলে জাহিদুল ইসলাম (৫৫)।

আটক জাহিদুল ইসলাম জানান, গতকাল শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে নওগাঁর বালুডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ড থেকে রাজশাহীগামী একটি বাসে মান্দা উপজেলার ঐতিহাসিক কুশুম্বা মসজিদে মানত দিতে রওনা দেন। পথে সতিহাট বাসস্ট্যান্ডে নেমে একটি অটোরিকশায় তারা কাঞ্চন বাজারে আসেন। অটোরিকশা থেকে নেমে বাজারের পাশে মমতাজ হোসেনের বাড়ি যান তারা। তবে, মমতাজ হোসেনের বাড়ি তারা কেন গিয়েছিলেন এ বিষয়ে কোন কথা বলতে রাজি হননি আটক জাহিদুল ইসলাম।

স্থানীয়রা জানান, ওই বাড়ি থেকে বের হবার পর-পরই মা ফরিদা বিবি ও মেয়ে শাহনাজ পারভীন বমন করতে শুরু করেন। এর কিছু পরেই তারা অচেতন হয়ে পড়েন। চিকিৎসা ব্যবস্থার আগেই মা ফরিদা বিবি মারা যান। পরে মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে মৃত্যুও কোলে ঢলে পড়েন মেয়ে শাহনাজ।
মান্দা থানার পরিদর্র্শক (ওসি) মোজাফফর হোসেন জানান, ঘটনাটি রহস্যজনক বটে।

এ ঘটনায় খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পৌঁছে জাহিদুল ইসলাম, মমতাজ হোসেন ও লতিফা বিবিকে আটক করে। পরে আটক তিনজনকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানা হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তাদের মৃত্যু রহস্য উদঘাটনে তদন্ত করা হচ্ছে।