যেভাবে ‘পর্নস্টার’ হলেন ইউদি পিনেদা

৩:১৫ অপরাহ্ণ | বুধবার, জানুয়ারি ৯, ২০১৯ বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক- ভেবেছিলেন হবেন রুমাল, হয়ে গেলেন বিড়াল! ভেবেছিলেন হবেন সন্ন্যাসিনী, হয়ে গেলেন পর্ন ছবির নায়িকা! এমনই আজব গল্প পর্ন তারকা ইউদি পিনেদা-র!

তবে গোড়া থেকেই শুরু করা যাক! মাত্র ৮ বছর বয়সেই চার্চে যাওয়া শুরু করেছিলেন ইউদি। মনে তীব্র ইচ্ছে, সন্ন্যাসিনী হবেন! ৮ বছর সন্ন্যাসিনী হিসাবে কাটানও তিনি! দিন যায়! ধীরে ধীরে ইউদি বুঝতে পরেন, সন্ন্যাসিনী হওয়া তাঁর হবে না! কাজ শুরু করেন একটি বেসরকারি সংস্থায়। সেখানেও মন টেকে না! তারপরের গন্তব্য? নীল ছবির ইন্ডাস্ট্রি! সেখানে পা রাখতে না রাখতেই ঝড় তোলেন ইউডি পিনেডা, কলম্বিয়াসহ গোটা দুনিয়া।

ইউদি নিজেই নিজের জীবনের কথা শেয়ার করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেখানে তিনি জানিয়েছেন, চার্চে থাকালীনই হুয়ান বুস্টোস নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে আলাপ হয় ইউদির। হুয়ান পর্ন ছবির জন্য মডেল খুঁজছিলেন। তাঁর কথাতেই পর্ন ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখেন ইউদি।

ইংরেজি সংবাদমাধ্যমে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে ইউডির জানায়, ”বেশ কিছু অডিশন দেওয়ার পর আমি বুস্টোসের নজরে আসি। অডিশন শেষ হওয়ার পর উনি আমাকে সিলেক্ট করেন।” তিনি আরও জানান, ”প্রথম প্রথম এই কাজ করতে একটু খারাপ লাগছিল। কিন্তু এখন বেশ ভালই লাগছে।”

এ ধরনের জীবিকা বেছে নেওয়ায় রেগে গিয়েছিলেন তাঁর কনভেন্ট স্কুলের শিক্ষিকারা। বাধা দেওয়ারও চেষ্টা করেছেন ইউডিকে। কিন্তু কোনও ভাবেই মত বদল করেননি তিনি। ব্যাংব্রোস প্রযোজিত ইউডির প্রথম পর্ন সিরিজের থিম কনভেন্ট নিয়েই।

অভিনেত্রীর স্পষ্ট বক্তব্য, পর্ন ছবিতে অভিনয় করার মধ্যে খারাপ কিছুই তিনি খুঁজে পাননি। এই ছবিতে অভিনয় করাটাও এক ধরণের শিল্প। এখনও তিনি সপ্তাহের শেষে শুক্র-শনিবার করে চার্চের প্রার্থনায় সামিল হন। তিনি জানিয়েছেন, “এখন যখন চার্চে যাই তখন আমার খুব ভালো লাগে।”