যৌন নির্যাতন সইতে না পেরে পুরুষাঙ্গ কেটে স্বামীকে হত্যা করলো স্ত্রী!

সময়ের কণ্ঠস্বর, নাটোর :: নাটোরের গুরুদাসপুরে দাম্পত্য কলহের জেরে ক্ষিপ্ত হয়ে স্বামী কাবিল বিশ্বাসের (২৫) গোপনাঙ্গ কেটে তাকে খুন করেছেন স্ত্রী রুমা খাতুন। শনিবার ভোরে উপজেলার মাশিন্দা মাঝপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত কাবিল বিশ্বাস পাবনার চাটমোহর উপজেলার ধানককুইনা গ্রামের নওশের বিশ্বাসের ছেলে। কাবিলের স্ত্রী রুমি খাতুন (১৮) মাশিন্দা মাঝপাড়া গ্রামের মকসেদ প্রামাণিকের মেয়ে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, প্রায় পাঁচ মাস প্রেমের সম্পর্ক চলার পর পারিবারিক সম্মতিতে চার মাস আগে কাবিল ও রুমার বিয়ে হয়। গতকাল শুক্রবার কাবিল বিশ্বাস মাশিন্দা মাঝপাড়া গ্রামে শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে যান। রাতে স্ত্রীকে শারীরিক সম্পর্কের আহ্বান জানালে কাবিলের আহ্বান নাকচ করে দেয় রুমা। এরপর দুজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরু হয়।

একপর্যায়ে কাবিল জোরপূর্বক রুমার সাথে শারিরীক সম্পর্ক স্থাপনের চেষ্টাকালে স্ত্রী রুমা খাতুন ধারালো অস্ত্র দিয়ে স্বামী কাবিল বিশ্বাসের লিঙ্গ কেটে ফেলেন। এতে ঘটনাস্থলেই কাবিল বিশ্বাসের মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে গুরুদাসপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম রেজা জানান, খবর পেয়ে পুলিশ কাবিলের মরদেহ উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে নিহত কাবিলের স্ত্রী রুমা খাতুনকে আটক করা হয়েছে।

আটক রুমা খাতুন জানান, অতিরিক্ত যৌন নির্যাতন সইতে না পেরে তিনি স্বামী কাবিল বিশ্বাসের যৌনাঙ্গ কর্তন করেছেন।

Sharing is.

Share on facebook
Share with others
Share on google
Share On Google+
Share on twitter
Share On Twitter
  • You May Also Like: