সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

জামালপুরে মালিক-শ্রমিক সংগঠনের নামে চাঁদা আদায়, বিপাকে যাত্রীরা

৪:৩১ অপরাহ্ণ | শনিবার, জানুয়ারি ১২, ২০১৯ ময়মনসিংহ

আবদুল লতিফ লায়ন, জামালপুর প্রতিনিধি: জেলায় মালিক সমিতি-শ্রমিক ইউনিয়নের মোড়ে মোড়ে চাঁদাবাজির কারণে অতিরিক্ত ভাড়া গুণতে হচ্ছে যাত্রীদের। সড়ক অবরোধ কর্মসূচি পালন করেও চাঁদাবাজদের কবল থেকে মুক্তি মিলছে না।

জানা যায়, প্রতিদিন জেলা থেকে সাত উপজেলায় প্রায় ৫ সহস্রাধিক অটোরিকশা ও ইজিবাইক চলাচল করে থাকে। এসব যানবাহনের ওপর ভিত্তি করে মালিক সমিতি ও শ্রমিক ইউনিয়ন নামে গড়ে উঠেছে নানা সংগঠন। মালিক-শ্রমিকদের স্বার্থ সংরক্ষণের নামে গড়ে ওঠা এসব সংগঠন এখন চাঁদাবাজ সংস্থায় পরিণত হয়েছে বলে অভিযোগ ভূক্তভোগীদের।

জেলা-উপজেলা সড়কে চলাচলকারী ছোট ছোট এসব গাড়ির চালকদের ৬-৭টি পয়েন্টে কথিত সংগঠনকে দিনে ১৬০ টাকা থেকে ২০০ টাকা পর্যন্ত চাঁদা দিতে হয়। ফলে চালকদের আয়ের এক-তৃতীয়াংশ টাকা চলে যায় চাঁদার খাতায়।

সম্প্রতি চাঁদাবাজি বন্ধে চালকরা জামালপুর-দেওয়ানগঞ্জ সড়কে অবরোধ কর্মসূচির ডাক দেয়। পরে পুলিশের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেয়া চালকরা। কিন্তু এখনও প্রতিকার মিলেনি। ফলে চাঁদাবাজরা আরো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে বলে অভিযোগ চালকদের।

মালিক-শ্রমিক ইউনিয়ন নেতারা জানান, চালক- শ্রমিকদের প্রয়োজনেই বিভিন্ন পয়েন্টে সংগঠনের শাখা খোলা হয়েছে। অন্যদিকে চাঁদা ও সিএনজির দাম বৃদ্ধির অজুহাতে জামালপুর-ইসলামপুর-দেওয়ানগঞ্জ ৫০ টাকার ভাড়া ৬০ টাকা ও ৭০ টাকার ভাড়া ৯০ করেছে চালকরা। ভুক্তভোগী যাত্রীদের অভিযোগ, ভাড়া বাড়িয়ে যাত্রীদের কাছ থেকে চাঁদার টাকা উঠিয়ে নিচ্ছে চালকরা।